খুলনা গেজেটকে আরও এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয়

43

ইমরান হোসেন আশা ##

অনলাইনের সময়কালে খুলনা গেজেটের প্রতি খুলনার মানুষের প্রত্যাশা অন্য অনেকের চেয়ে বেশি। তাই খুলনা গেজেটের সত্য ও ন্যায়ের পথে নেতৃত্ব দেওয়ার মানসিকতাকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। উন্নয়ন, গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও দেশকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে জোরালো ও সাহসী ভূমিকা অব্যাহত রাখতে হবে। প্রতিনিধি সম্মেলনে বক্তারা এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

খুলনার জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল খুলনা গেজেট-এর প্রথম প্রতিনিধি (জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয়) সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নগরীর হোটেল রয়্যাল ইন্টারন্যাশনালে শনিবার এক সম্মেলনে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন খুলনা গেজেট-এর সম্পাদক মো. মাহমুদ আহসান। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে। আমাদের মাথাপিছু আয় বেড়েছে, গড় আয়ু বেড়েছে, শিল্প, সাহিত্য, জ্ঞান-বিজ্ঞান, দর্শন-সবকিছুতে এগোচ্ছে। অচিরেই আমাদের দেশ মধ্য আয়ের দেশের কাতার থেকে উচ্চ আয়ের দেশে পরিণত হবে। দেশের এই উন্নয়ন-অগ্রগতির সঙ্গে খুলনা গেজেট ওতপ্রোতভাবে জড়িত।’ সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে পাঠকের যে প্রত্যাশা, সেই প্রত্যাশার প্রতিফলন যাতে প্রতিদিনের পত্রিকায় থাকে, আমরা সেই চেষ্টা করি এবং ভবিষ্যতেও সেভাবেই পাঠকের সামনে হাজির হতে চাই।’ পাঠকের চাহিদার কথা মাথায় রেখে সংবাদকর্মীদের নতুন ধারণা ও নতুন কলেবরে, ভিন্ন আঙ্গিকে সংবাদ পরিবেশ করার আহবান জানান তিনি।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রধান (সাময়িক দায়িত্ব) মামুন অর রশিদ, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক হাসান আহমেদ মোল্যা। সম্মেলনে প্রতিনিধিরা খুলনা গেজেট’র অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে নিরলসভাবে কাজ করবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সম্মেলন শুরুর আগে খুলনার প্রয়াত সাংবাদিকদের মাগফিরাত কামনায় দোয়া করা হয়।

প্রতিনিধি সম্মেলনে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রধান মামুন অর রশিদ বলেন, ‘অনলাইনের এই যুগে একটি সংবাদ কতটা বস্তুনিষ্ঠ, তা যাচাইয়ের একটি মাধ্যম হলো সংবাদ পরিবেশনের ধরণ। পরিপূর্ণ একটি প্রতিবেদন পাঠকের কাছে তুলে ধরতে হলে নির্ভুল তথ্য উদঘাটন করতে হয়। যা নিউজ পোর্টাল খুলনা গেজেট করতে পারবে। এ ছাড়া বিভিন্ন শ্রেণি-পেশা ও নানা মতের মানুষের মতামত প্রদানের ক্ষেত্রে এই পত্রিকাটি অনুসরণযোগ্য। তাই এই পত্রিকার কাছে মানুষের প্রত্যাশাও বেশি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে এগিয়ে নেওয়া, তরুণদের স্বপ্ন দেখিয়ে তাদের এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে এর অবস্থান আরও জোরালো করার তাগিদ দেন তিনি।’

খুলনা গেজেটের প্রধান প্রতিবেদক মোহাম্মদ মিলনের পরিচালনায় শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন খুলনা গেজেটের যুগ্ম সম্পাদক শেখ দিদারুল আলম। তিনি বলেন, ‘খুলনা গেজেটের চলার পথে সবচেয়ে বড় শক্তি পাঠক। আর আমরা এই পথচলায় অনুপ্রেরণা পাই বাঙালির ইতিহাস থেকে। কারণ বাঙালি জাতির সাহস আছে, সেই সাহসে আমরা বলীয়ান। ’৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ’৬৯-এর গণ-অভ্যুত্থান, ’৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে আমরা সেই সাহসের প্রমাণ দেখেছি।’

খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন বলেন, ‘খুলনা গেজেট’ খুলনার শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। যার পরিচিতি ইতোমধ্যে খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। সেই ধারাবাহিকতা যেনো প্রতিষ্ঠানের কর্ণধাররা ধরে রাখতে পারে। পোর্টালটি আরও এগিয়ে যাক, এ কামনাই করছি। আমার পক্ষ থেকে এ পোর্টালের সঙ্গে জড়িত সকলের সাফল্য কামনা করছি।’

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-পরিচালক গাজী আলাউদ্দিন আহমদ বলেন, ‘ইতিবাচক দিকগুলো সাংবাদিকদের বেশি প্রাধাণ্য দিতে হবে। হতাশা নয়, মানুষকে আশার আলো দেখাতে হবে। এছাড়া গুজব এড়াতে সত্য ও নিরপেক্ষ তথ্য সংগ্রহ করে সংবাদ পরিবেশন করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।’

খুলনা গেজেটের নির্বাহী সম্পাদক কাজী মোতাহার রহমান বলেন, ‘খুলনা গেজেট একটি জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। যেভাবে অনুসন্ধানীমূলক প্রতিবেদন প্রকাশ করে এ পোর্টালটি এগিয়ে যাচ্ছে, আশা করি সামনে আরও গঠনমূলক সংবাদ পরিবেশন করে এগিয়ে যাবে।’

খুলনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হাসান আহমেদ মোল্যা বলেন, ‘পক্ষপাতিত্ব না করে নির্ভিক ও সত্য সংবাদ প্রকাশ করতে খুলনা গেজেট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে নিউজ পোর্টালটি আরও এগিয়ে যাক, এ শুভ কামনা করছি।’

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি সলিল বিশ্বাস মিঠু বলেন, ‘এ প্রতিনিধি সম্মেলনের কারণে প্রতিনিধিদের কাজের গতি আরও বাড়াবে। প্রতিনিধি সম্মেলনের মাধ্যমে আমরা ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ হই। প্রতিবছর এ সম্মেলন অব্যাহত থাকবে বলে আমি আশা করছি।’

চিতলমারী প্রতিনিধি মো. সেলিম সুলতান বলেন, ‘প্রতি মুহুর্তের সংবাদ মুহুর্তেই প্রকাশ করে খুলনা গেজেট ইতোমধ্যে অনলাইন জগতে সাড়া ফেলেছে। আগামীতেও এ ধারা অব্যাহত রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

যশোর জেলা প্রতিনিধি জাহিদ আহমেদ লিটন বলেন, ‘প্রতিনিধি সম্মেলনের মাধ্যমে প্রতিনিধিদের সুখ-দুঃখের কথা শেয়ার করা যায়। পাশাপাশি প্রতিনিধিদের কাজের গতিও বেড়ে যায়। খুলনা গেজেটের সফলতা কামনা করছি।’

নিজস্ব প্রতিবেদক নিপা মোনলিসা বলেন, ‘খুলনা গেজেটের সঙ্গে শুরু থেকেই ছিলাম। ভবিষ্যতেও থাকবো বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।’

এসময় বার্তা সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনারা আমাদের খুলনা গেজেট-এর পরিবারের সদস্য। আজ আপনাদের উপস্থিতিই প্রমাণ করে খুলনা গেজেট কতটা জনপ্রিয় গণমাধ্যম। আমাদের ডাকে সাড়া দেয়ায় আপনাদের সকলকে আন্তরিকভাবে অভিনন্দন জানাই। আমাদের আজকের এই সফলতার পিছনে আপনাদেরও হাত রয়েছে। আমি আশা করছি আমাদের চলার পথে আপনারা যেভাবে সহযোগিতা করেছেন আগামীতেও সেই ধারা অব্যাহত রাখবেন। খুলনা গেজেটের পাঠক, বিজ্ঞাপন দাতা ও আমাদের সঙ্গে জড়িত সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আপনাদের সকলের ভালোবাসায় আজ খুলনা গেজেট পরিচিতি লাভ করেছে।’

দেশের সব অঞ্চল থেকে পাঠকেরা অনলাইনে খুলনা গেজেট পড়েন। এ ছাড়া ফেসবুকে খুলনা গেজেটের পেজে (www.facebook.com/klngazette) ১ লাখ ১২ হাজারের বেশি অনুসারী রয়েছেন। খুলনা গেজেট ‘সবার আগে সঠিক খবর’-এ স্লোগানকে সামনে রেখে ২০২০ সালের ১৩ জুলাই অনলাইন নিউজ পোর্টাল হিসেবে পথচলা আরম্ভ করে।

সর্বশেষে সম্পাদক মো. মাহমুদ আহসান বলেন, ‘সবার আন্তরিক প্রচেষ্টায় খুলনা গেজেট আজ খুলনার প্রথম সারির অনলাইন নিউজ পোর্টাল। এ সাফল্য যেন আমরা ধরে রাখতে পারি। এজন্য প্রতিনিধিদের সহযোগিতা চান তিনি। এসময় প্রতিনিধি সম্মেলনে যোগ দেয়ার জন্য বিভিন্ন স্থান থেকে আগত প্রতিনিধিদেরকে ধন্যবাদ জানান তিনি।’