টুইটারের সিইওকে হুমকি কঙ্গনার

60

 

মশিয়ার রহমান কাজল ## সাইফ আলী খানের ‘তাণ্ডব’ নিয়ে বিতর্ক চলছেই। আর সেই আগুনেই ঘি ঢেলেছিল কঙ্গনা রানাউতের টুইট। এবার বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে অভিনেত্রীর টুইটার হ্যান্ডেলে সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। তবে এতেও থেমে যাননি বলিউডের ‘কুইন’। পাল্টা আক্রমণ শানিয়েছেন তিনি। টুইটারের সিইও জ্যাক ডোরসেকে পাল্টা হুমকি দিয়ে কঙ্গনা বলেন, ‘তোমাদের বেঁচে থাকা দুষ্কর করে দেব।’

‘তাণ্ডব’ নিয়ে দেশজুড়ে চলা বিতর্কের মাঝে কঙ্গনা তার টুইটে লিখেছিলেন, শুধু হিন্দু ভাবাবেগে নয়, দর্শকদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে। এমনকি ‘তাণ্ডব’-এর নির্মাতাদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিও জানিয়েছিলেন কঙ্গনা।

এখানেই শেষ নয়, আরও একটি টুইটে কঙ্গনা লেখেন, ‘ভগবান কৃষ্ণও শিশুপালের ৯৯টি ভুল ক্ষমা করে দিয়েছিলেন। প্রথমে শান্তি, তারপর ক্রান্তি। এবার ওদের মাথা কেটে নেওয়ার সময় এসেছে।…জয় শ্রী কৃষ্ণ।’

আরও একটি টুইটে কঙ্গনা লেখেন, ‘যে স্বাধীনচেতাগণ মায়ের কোলে ভয়ে লুকিয়ে কাঁদছেন, তারা শুনুন। আমি তোমাদের মাথা কাটার কথা বলিনি। আমিও জানি পোকামাকড় মারার জন্য কীটনাশকের প্রয়োজন হয়।’

যদিও পরে কঙ্গনা টুইটটি মুছে দেন। তবে কঙ্গনার বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ করেন নেটিজেনদের একাংশ। একাধিক অভিযোগের পরই টুইটার কর্তৃপক্ষের তরফে অভিনেত্রীর টুইটার হ্যান্ডেলে সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়।