মুখ খুললেন প্রসেনজিৎ, রাজনীতিতে আসার গুঞ্জন নিয়ে

78

নজরুল ইসলাম ## গুঞ্জন উঠেছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কলকাতার নায়ক প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি বিজেপি নেতা অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায় তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার পর গুঞ্জন ডালপালা মেলে। চারদিকে চাউর হওয়ার পর এই বিষয় স্পষ্ট করে প্রসেনজিৎ জানিয়েছেন, আমি রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছি না। বড় কোনো সিদ্ধান্ত নিলে সবাইকে জানাবো।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এক লেখায় প্রসেনজিৎ বলেন, বুধবার সকাল থেকে শুধু ফোনের পর ফোন! একটাই প্রশ্ন— আমি কি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছি! বারবার ঘুরিয়ে ফিরিয়ে সেই একই প্রশ্ন। কেন? কেননা, মঙ্গলবার আমার বাড়িতে বিজেপি নেতা অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায় এসেছিলেন একটি বই উপহার দিতে! স্রেফ একটা সৌজন্য সাক্ষাৎকারের জন্য। এই প্রসঙ্গে আমি কিছু বলতে চাই। এটা আবার না বুঝে ভেবে বসবেন না, আমি কারো কাছে কোনো ‘জবাবদিহি’ করছি।

এরই মধ্যে টালিউডের অনেকেই বিভিন্ন দলে যোগ দিয়েছেন। এ নিয়ে চর্চা চলছে। সে বিষয়ে প্রসেনজিৎ বলেন, আমাদের ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছেন। সেটা তাদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। কিন্তু দয়া করে এর মধ্যে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে টানবেন না। সকাল থেকে ফোনের পর ফোন পেতে পেতে মনে হচ্ছিল, সংবাদমাধ্যম কি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের ওপর তাদের দীর্ঘদিনের লালিত বিশ্বাসটা হারিয়ে ফেলছে? তারা কি জানে না, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় যদি কোনো বড় সিদ্ধান্ত নেয়, তাহলে সেটা বুক ফুলিয়ে সকলের সামনে ঘোষণা করবে?

যে দলই করুন না কেন ইন্ডাস্ট্রি বাঁচাতে সবাইকে এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রসেনজিৎ। তিনি বলেন, একজন অভিনেতা এবং সিনিয়র শিল্পী হিসাবে কেন্দ্র এবং রাজ্যের দুই সরকারের কাছে আমার একটাই অনুরোধ— সিনেমাটা বাঁচাও! ঋত্বিক ঘটক, সত্যজিৎ রায় যে ভাষার ছবি তৈরি করে গিয়েছেন, সেই ভাষার সিনেমাকে বাঁচাও। আর দু’পক্ষ এক না হলে কিন্তু সিনেমাকে বাঁচানো যাবে না। এটা কারও একার কাজ নয়। কোনো একপক্ষের কাজ নয়।

ভক্ত ও সমালোচকদের এ বিষয়ে গুঞ্জন সৃষ্টি না করার অনুরোধ জানিয়েছেন প্রসেনজিৎ। তিনি বলেন, দোহাই আপনাদের, এবার আমার রাজনৈতিক দলে যোগদান নিয়ে জল্পনা বন্ধ করুন। আর যা-ই হোক, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কোনো রাজনৈতিক দলে যোগ দেবে না। জেনে রাখুন। বিশ্বাস করতে শিখুন।

সম্প্রতি মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন আরএসএস প্রধান মোহন ভগবত। তারপরই গুঞ্জন ওঠে যে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন তিনি। প্রসেনজিৎ ও মিঠুনের বিজেপিতে যোগ দেয়া নিয়ে গুঞ্জন আরও জোরালো করেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেয়া অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। তিনি নেতাদের সঙ্গে দুই অভিনেতার সাক্ষাতের ছবি পোস্ট করে ইঙ্গিতপূর্ণ বার্তা দেন। তবে এ বিষয়ে প্রসেনজিৎ স্পষ্ট বার্তা দিলেও কোনো মন্তব্য করেননি মিঠুন।