• ২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:৩৭
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

কারাবন্দী চিদাম্বরমকে দেখতে গেলেন সোনিয়া-মনমোহন

bmahedi
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯, ১৮:০৪ অপরাহ্ণ
রোকনুজ্জামান রিপন।। 

ভারতে দুর্নীতির অভিযোগে কারাবন্দী সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে দেখতে গিয়েছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং। তাদের সঙ্গে ছিলেন চিদাম্বরম পুত্র কার্তিও।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানায়, সোমবার প্রবীণ কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরমকে সমর্থন জানাতে তার সঙ্গে দেখা করতে তিহার জেলে যান সোনিয়া ও মনমোহন।  জেলে এসে সাক্ষাৎ করায় চিদাম্বরমের এক টুইটারে সোনিয়া ও মনমোহনের প্রশংসা করা হয়েছে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে তার হয়ে এই টুইট করা হয়। এতে বলা হয়, “আমি সম্মানিত যে সোনিয়া গান্ধী এবং ড. মনমোহন সিং আজ (সোমবার) আমার সঙ্গে জেলে এসে সাক্ষাৎ করেছেন। যতক্ষণ দল শক্তিশালী এবং সাহসী থাকবে ততক্ষণ আমিও শক্তিশালী ও সাহসী থাকব।”

টুইটটিতে যুক্তরাষ্ট্রে হাউডি মোদি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনাও করা হয় । মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপস্থিতিতে ওই অনুষ্ঠানে মোদি  বলেন, “ভারতে সব ভালো আছে।”এর প্রতিক্রিয়ায় কংগ্রেসের এই নেতার টুইটে বলা হয়, “ভারতে সব ভালো রয়েছে, ব্যতিক্রম শুধু, বেকারত্ব, কর্মী ছাঁটাই, কম বেতন, রাজনৈতিক বিদ্বেষ, কাশ্মীরে অচলাবস্থা ও বিরোধী দলের নেতাদের জেলবন্দী করা।”

এ দিকে দলের দুই শীর্ষ নেতা জেলে চিদাম্বরমের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন চিদাম্বরম পুত্র কার্তিও।

তিনি বলেন, “আমার বাবা ও পরিবার সোনিয়া গান্ধী ও ড. মনমোহন সিংয়ের প্রতি চির কৃতজ্ঞ। এই রাজনৈতিক লড়াইতে তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ বিরাট অনুপ্রেরণা জোগাবে।” এর আগে জেলে চিদাম্বরমের সঙ্গে দেখা করেছিলেন গুলাম নবি আজাদ ও আহমেদ প্যাটেল।

প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে আইএনএক্স মিডিয়া সংস্থায় দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়। ছেলে কার্তি চিদাম্বরমের মাধ্যমে প্রভাবিত হয়ে টেলিভিশন কোম্পানি আইএনএক্স মিডিয়াকে বিপুল অর্থ পেতে সহায়তা করেন ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী। তার ছেলে কার্তি এ বিনিয়োগের ভাগ পেয়েছেন।

Sharing is caring!