• ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:২৪
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফিরছেন লিটন দাস

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত জুলাই ২৭, ২০২১, ১৭:০৩ অপরাহ্ণ
জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফিরছেন লিটন দাস

ছবি: সংগৃহিত

স্পোর্টস ডেস্ক ।।

তামিম-মুশফিকের পর আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকে এবার ছিটকে গেলেন লিটন দাসও। শ্বশুর অসুস্থ হওয়ায় আজই জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফিরতে হচ্ছে তাকে। জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে আসার কারণে পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে পারবেন না এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

জিম্বাবুয়ে থেকে বাংলাদেশ দল দেশে ফিরবে আগামী ২৯ জুলাই। দেশে ফিরেই অস্ট্রেলিয়ার সাথে সিরিজ খেলার জন্য জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করবেন ক্রিকেটাররা। কিন্তু লিটন আগেই দেশে ফিরে পরিবারের সাথে দেখা করলে জৈব সুরক্ষা বলয় থেকে বের হয়ে যেতে হবে। এই কারণেই অস্ট্রেলিয়ার সিরিজে দেখা যাবে না তাঁকে।

চোটের কারণে ঘরের মাঠে এই সিরিজে লিটন দাসের খেলা নিয়ে আগে থেকেই অনিশ্চিয়তা ছিল। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছিলেন, সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে লিটনকে না পেলেও শেষ তিন ম্যাচে তাকে পেতে আশাবাদী তাঁরা। জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে যাওয়াতে এখন পুরো সিরিজেই লিটনকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ।

জানা গেছে, লিটনের শ্বশুর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় আগেই ফিরে আসতে হচ্ছে তাকে। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। তার রক্তে প্লাটিলেট কমে গেছে। গুরুতর অসুস্থ হয়ে ভর্তি আছেন রাজধানীর একটি হাসপাতালে। এই কঠিন সময়ে পরিবারের পাশে থাকতে আগেই দেশে ফিরতে হচ্ছে লিটনকে।

চোটের কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও খেলতে পারেননি তিনি। প্রথম ম্যাচের একাদশে থাকলেও ফিল্ডিংয়ের সময় পাওয়া চোটের কারণে ব্যাটিং করতে পারেননি। সেই চোটের কারণে খেলা হয়নি বাকি দুই ম্যাচেও। তবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ শুরুর আগেই লিটন সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশা ছিল টিম ম্যানেজমেন্টের। কিন্তু পারিবারিক কারণে তাকে ছুটি দিয়েছে বিসিবি।

বিসিবি নির্বাচক প্যানেল জানিয়েছে, ‘লিটন ফিরে আসছে। পারিবারিক বিষয়ে আসলে সবকিছুই ছাড় দিতে হয়। ওর শ্বশুর খুবই অসুস্থ। বাড়ি থেকে খবর পাওয়া মাত্রই আমাদের জানিয়েছে। দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে আমরা লিটনকে ছেড়ে দিয়েছি।’

এদিকে, চোটের কারণে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ থেকে আগেই নাম প্রত্যহার করে নিয়েছেন তামিম ইকবাল। এছাড়া পারিবারিক কারণে শুধু টেস্ট খেলে দেশে ফিরে আসা মুশফিকুর রহিমও রয়েছেন জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে। আর বাবার মৃত্যুতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ না খেলে জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফিরেছিলেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লবও। তিনিও জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে রয়েছেন।

জানা গেছে, চলতি মাসের ২০ তারিখের পর থেকে ঢাকায় কোয়ারেন্টাইনে থাকা ক্রিকেটার ও জিম্বাবুয়ে সফরে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকা ক্রিকেটাররাই শুধু এই সিরিজে খেলতে পারবেন। আর অস্ট্রেলিয়ার ক্ষেত্রে শর্ত হলো- অস্ট্রেলিয়ার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে থাকা ক্রিকেটাররাই শুধু বাংলাদেশ সফরে আসতে পারবেন।

সুতরাং জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড থেকে যারা জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে চলে গিয়েছেন তাদের পরিবর্তে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন মোসাদ্দেক হোসাইন সৈকত, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম ও রুবেল হোসাইন। এই চার ক্রিকেটার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে না থাকলেও ওয়ানডে সিরিজ খেলার কারণে জৈব সুরক্ষা বলয়েই ছিলেন।

বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড: মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, নুরুল হাসান (উইকেটকিপার), তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলাম, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, আফিফ হোসাইন, রুবেল হোসাইন, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসাইন, সৌম্য সরকার, শামীম হোসাইন পাটোয়ারী, নাসুম আহমেদ, শেখ মেহেদী হাসান।

Sharing is caring!