• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:১৫
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

টিকটকের নেশায় ঘর ছাড়লেন ৭ম শ্রেণির ছাত্রী

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত নভেম্বর ১৫, ২০২১, ১৭:০৭ অপরাহ্ণ
টিকটকের নেশায় ঘর ছাড়লেন ৭ম শ্রেণির ছাত্রী
নজরুল ইসলাম লিখন, ,রূপগঞ্জ।। 
নারায়ণগঞ্জে রূপগঞ্জ উপজেলার বরপা বাদামতলা এলাকার সুমিদের বাড়ির ভাড়াটিয়া ঘটনা । এই টিকটকের নেশায় ৯ নভেম্বর দুপুরে রূপগঞ্জে মো. আব্দুল মান্নানের মেয়ে ইয়ানুর আক্তার বাড়ি ছেড়েছেন আরেক টিকটকার ‘অভিমানি আসিফের সাথে। পরিবারের দাবি অভিমানি আসিফ নামে টিকটকার নারী পাচার চক্রের সদস্য। তাকে দ্রুত গ্রেফতার করে ইয়ানুর আক্তারকে  ফিরিয়ে আনার দাবি করেন পরিবারের লোকজন ।
টিকটক, যা নিয়ে উঠতি বয়সী কিশোর-কিশোরীর রয়েছে অনেক আগ্রহ। কিন্তু মাঝে মধ্যেই দেখা যায় এর আড়ালে পাচার বা অপহরণের শিকার হয় অনেকে। এমনই এক ঘটনার আশঙ্কা করছে  রূপগঞ্জে একটি পরিবার। তারা বলছে, হঠাৎ বাসা ছেড়ে চলে গেছে  আলিফা আইডিয়াল পাবলিক  স্কুলের ৭ম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ে ইয়ানুর আক্তার। বাসার সামনের সিসি কামেরায় দেখা যায়, স্বাভাবিকভাবেই বেরিয়ে যাচ্ছে ইয়ানুর আক্তার।
এ ব্যাপারে ইয়ানুরের বাবা মো. আব্দুল মান্না বলেন, প্রধানমন্ত্রী নিকট আকুল আবেদন আমার মেয়েকে জীবিত ফিরে পেতে চাই আমরা। মোবাইল ফোন পছন্দ ছিল মেয়ের। টিকটক পছন্দ করতো জানতাম। কিনে দিয়েছিলাম ভালো মনে করে। এমন হবে বুঝতে পারিনি।
সম্প্রতি টিকটকে ইয়ানুর আক্তারের সাথে পরিচয় হয় আরেক টিকটকার ‘অভিমানি আসিফের সাথে।  এর প্রায় ১ মাসের মধ্যে বাসা ছেড়ে চলে যায় সে। পরিবারের অভিযোগ অভিমানি আসিফের প্ররোচনাতেই চলে গেছে ১৩ বছর তিন মাসের মেয়ে ইয়ানুর আক্তার । এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানায় বাদি হয়ে  একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছে তার বড়ভাই ।
ইয়ানুর আক্তারের পরিবারের ধারণা,অভিমানি আসিফ নামে টিকটকার যুবক সংঘবদ্ধ নারী পাচার চক্রের সদস্য। তাকে দ্রুত গ্রেফতার করে ইয়ানুর আক্তারকে ফিরিয়ে আনার দাবি করেন তারা।
রুপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সাহেদের সাথে একা দিক ভার ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।
 বার্তাকণ্ঠ /এন

Sharing is caring!