• ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:১০
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে নামলেন সাকিব

bmahedi
প্রকাশিত আগস্ট ২, ২০১৯, ১৮:১৫ অপরাহ্ণ
সাজ্জাদুল ইসলাম  সৌরভ ।।  

ডেঙ্গু মহামারি আকার ধারণ করেছে। পুরো দেশেই ডেঙ্গুর ভয়াবহতা ছড়িয়ে পড়েছে। সবাইকে তাই সচেতন হওয়ার পরার্শ দিয়েছেন সাকিব। বৃহস্পতিবার বনানীর বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজে ডেঙ্গু সচেতনতামূলক কার্যক্রমে তিনি বলেছেন, ‘এ বছরের মতো কোনোবারই ঢাকাসহ সারাদেশে ডেঙ্গু এতটা মহামারি আকার ধারণ করেনি। সবার জানা দরকার, বোঝা দরকার যে জিনিসটা কতটা সিরিয়াস হতে পারে।’

নিজের ডেঙ্গু হওয়ায় কষ্টটা খুব ভালো করে জানা এই অলরাউন্ডারের, ‘আমার একবার ডেঙ্গু হয়েছিল। তাই আমি জানি এটা কতটা কষ্টকর। দেশের অনেকে সিরিয়াস অবস্থায় আছে, অনেকে মারা যাচ্ছে। আমাদের সচেতন হতে হবে। নয়তো এই রোগ থেকে প্রতিকার পাওয়া সহজ হবে না। যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা সঠিকভাবে জানতে পারব আমাদের কী করা উচিত, কোনও লাভ হবে না। শুধু শুনলাম কিন্তু বুঝলাম না বা কাজটা করলাম না, তাহলে কিন্ত লাভ হবে না।’

তিনি আরও বলেছেন, ‘আমি যতদূর জানি বনানী বিদ্যানিকেতনে সাড়ে ৬ হাজার ছাত্র আছে। মানে সাড়ে ৬ হাজার পরিবার। তারা যদি একটা পরিবারকেও বলে তাহলে ১৩ হাজার পরিবার জেনে যাচ্ছে। এটা যদি সামান্য পরিমাণেও কাজে আসে, তাহলে আমার এই প্রচারণা সার্থক হবে। আর এটা যেহেতু বাচ্চাদের বেশি আক্রান্ত করে, ওরা যদি আামার একটা কথাও মনে রাখে, তাতেই আমি সফল হবো।’

শ্রীলঙ্কা সফর শেষে দেশে ফিরে আসা ক্রিকেটারদেরও ডেঙ্গুর সচেতনতামূলক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হওয়া উচিত বলে মনে করেন সাকিব, ‘অবশ্যই। আমি তো মনে করি, সবারই কাছের স্কুলে গিয়ে প্রচারণায় অংশ নেওয়া উচিত। আপনাদের মিডিয়ারও ভূমিকা আছে। আমাদের এই কথাগুলো যদি তাদের কাজে আসে, এটাই সার্থকতা।’

এই কার্যক্রম শেষে ফিরে যাওয়ার পথে সাকিব জানালেন হজে যাওয়ার বিয়ষটি। হজ থেকে ফিরে আফগানিস্তান সিরিজ নিয়ে ভাববেন এই অলরাউন্ডার, ‘আগামীকাল (শুক্রবার) হজে যাচ্ছি। আসার পরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ একটা সিরিজ আছে। ফিট থাকলে ওখানে খেলব।’

Sharing is caring!