• ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৫৯
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

দীর্ঘ তিন যুগেও বেনাপোলে গড়ে ওঠেনি কোনো হাসপাতাল

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১, ১৭:০৪ অপরাহ্ণ
দীর্ঘ তিন যুগেও বেনাপোলে গড়ে ওঠেনি কোনো হাসপাতাল

বেনাপোল প্রতিনিধি ।।

দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর যশোরের বেনাপোলে দীর্ঘ তিন যুগেও এখানে গড়ে ওঠেনি কোন হাসপাতাল। কাগজ কলমে ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থাকলেও তার নেই অস্তিত্ব এ অঞ্চলের মানুষ পাচ্ছে না কোন চিকিৎসা সেবা।
চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত পাসপোর্টযাত্রী, বন্দর ব্যবহারকারী ও এলাকাবাসী মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ১ লাখ ২ হাজার পৌর নাগরিক। স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে কাস্টমস ও বন্দরে কর্মরত ১০ হাজার কর্মকর্তা কর্মচারী। বন্দর ও পৌর এলাকায় প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা।ভারতের সাথে এ বন্দর দিয়ে বছরে ৪০ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য সম্পন্ন হয়ে থাকে বিভিন্ন খাত থেকে সরকারের রাজস্ব আদায় হয় প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা। আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট বেনাপোল দিয়ে করোনার আগে প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ হাজার পাসপোর্টযাত্রী যাতায়াত করে ভারতে। বেনাপোলে আছে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংক বীমা অফিস।
বেনাপোলবাসীদের ৩৮ কি: মি: দুরে যশোর জেলায় যেতে হয় চিকিৎসা সেবা নিতে। জরুরী সেবা দিতে না পেরে অনেক সময় বেনাপোলের বাইরে হাসপাতালে যেতে যেতে রোগী মারা যায়। গত ৬ মাসে এ এলাকায় ৭৫টি সড়ক দুর্ঘটনায় ১২জন নিহত ও আহত হয়েছে ৯১জন। আর বেনাপোল পৌর সভা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে নিহত ১ শত ৩০ জনকে মৃত্যু সদন দিয়েছে। গুরুত্বপূর্ন এই বন্দরে হাসপাতালের অভাবে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনায় চিকিৎসা না পেয়ে মারা যাচ্ছে মানুষ। বেনাপোল বাসীর দাবী অবিলম্বে বেনাপোল বন্দর এলাকায় একটি উন্নত মানের হাসপাতাল নির্মাণ করা হোক।

বেনাপোলের ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রহমান বলেন, র্দীর্ঘদিন ধরে বেনাপোলে কোনো হাসপাতাল না থাকার কারণে চিকিৎসার জন্য ভোগান্তি পোহাতে হয় বেনাপোলবাসীকে। ৩৮ কি.মি. রাস্তা পাড়ি দিয়ে যশোরে যেতে হয়। অবলিম্বে আমরা দেশের এই সর্ববৃহৎ স্হল বন্দরে একটি হাসপাতাল নির্মানের জোর দাবি জানাচ্ছি।

বেনাপোল ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দিন বলেন, বেনাপোল বন্দর একটি হাসপাতাল খুবই জরুরি আমাদের ট্রাকের অনেক চালক দুর্ঘটনায় পতিত হলে ফায়ার সার্ভিসের এ্যাম্বুলেন্সে করে যশোর হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয় নেওয়ার পথে অনেকে মারাও গেছেন।
এখানে হাসপাতাল হলে বন্দর ব্যবহারকারী প্রতিটি সংগঠনসহ এলাকাবাসী তাদের সেবার জায়গাটা খুঁজে পাবে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি দ্রুত একটি হাসপাতাল নির্মাণ করা হোক।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন বলেন, দেশের গুরুত্বপুর্ণ স্থলবন্দর বেনাপোল কিন্তু দুঃখজনক যে এখানে একটি হাসপাতাল নেই এখানে ৫০ শষ্যার একটি হাসপাতাল দ্রুত নির্মাণ করার দাবি জানাচ্ছি।
বেনাপোলের পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বলেন বেনাপোল একটি হাসপাতালে জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরে কাগজপত্র জমা দেওয়া হয়েছে আশা করি খুব দ্রুত আমরা সুখবর পেয়ে যাবো।

Sharing is caring!