• ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৫৬
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

দূর্গাপুজায় ৪ দিন বন্ধ থাকবে বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ৬, ২০২১, ১৩:২৮ অপরাহ্ণ
দূর্গাপুজায় ৪ দিন বন্ধ থাকবে বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি

বেনাপোল প্রতিনিধি ।।
শারদীয় দূর্গা পুজা উপলক্ষে আগামী ১২ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত চার দিন বেনাপোল পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে দু’দেশের মধ্যে আমদানী রফতানী বানিজ্য বন্ধ থাকবে। ভারতের পেট্রাপোল স্টাফ এসোসিয়েনের সাধারন সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তি স্বাক্ষরিত এক পত্রে এ তথ্য জানিয়েছেন।

বেনাপোল দেশের বৃহত্তম স্থল বন্দর । বেনাপোল থেকে কোলকাতার দুরত্ব ৮৪ কিলোমিটার। ভারত থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানী পন্য বাংলাদেশে আসতে সময় কম লাগার কারনে স্থল পথে আমদানীকারকরা এ বন্দর দিয়ে অধিকাংশ পন্য আমদানী করে থাকেন। ভারত থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে গার্মেন্টস শিল্পের কাচামাল, ওষুধের কাচামাল ,ক্যামিক্যাল, মটর পার্টস সহ কয়েক’শ রকমের পন্য আমদানী হয়ে থাকে। বাংলাদেশ থেকেও জুট ও জুটজাত পন্য, গার্মেন্টস সামগ্রী , সয়াবিন জাতীয় পন্য ও ভুসি এ বন্দর দিয়ে ভারতে রফতানী হয়ে থাকে। চার দিন আমদানী বন্ধ থাকলে আমাদের গার্মেন্টস শিল্পের কাচা মালে কিছুটা ঘাটতি পড়বে বলে জানান ব্যবসায়ীরা ।

পেট্রাপোল স্টাফ এসোসিয়েনের সাধারন সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তি স্বাক্ষরিত পত্রে জানানো হয়েছে, আমাদের সনাতন ধর্মীওদের সবচেয়ে বড় উৎবস শারদীয় দূর্গপুজা। এ দূর্গাপুজা উপলক্ষে আগামী ১২ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত চার দিন আমাদের সরকারী ছুটি আছে। যারা আমদানী রফতানী কাজ করে থাকে তারা কেউ এ চার দিন কাজে যোগ দিবে না দূর্গাপুজা উৎসব উৎযাপনের জন্য। তারা নবমী ও বিজয় দশমী শেষে কাজে যোগ দিবে। আগামী ১৬ অক্টোবর শনিবার থেকে দু’দেশের মধ্যে পুনরায় আমদানী রফতানী বানিজ্য চালু হবে।
বেনাপোল স্টাফ এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক সাজেদুর রহমান জানান, পেট্রাপোল স্টাফ এসোসিয়েশন থেকে একটা পত্র পেয়েছি। পত্রে লেখা আছে দুর্গা পুজার সরকারী ছুটির কারনে তারা আমদানী রফতানী বানিজ্য চারদিন বন্ধ রাখবে। ১৬ অক্টোবর শনিবার পুনরায় আমদানী রফতানী চালু হবে।

বেনপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন জানান, ভারত থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে গার্মেন্টস শিল্পের কাচামাল, ওষুধের কাচামাল ,ক্যামিক্যাল, মটর পার্টস সহ কয়েক’শ রকমের পন্য আমদানী হয়ে থাকে। আমাদের দেশ থেকেও জুট ও জুটজাত পন্য, গার্মেন্টস সামগ্রী , সয়াবিন জাতীয় পন্য ও ভুসি এ বন্দর দিয়ে ভারতে রফতানী হয়ে থাকে। চার দিন আমদানী বন্ধ থাকলে আমাদের গার্মেন্টস শিল্পের কাচা মালে কিছুটা ঘাটতি পড়বে। তবে এ কয়েকদিন বেনাপোল কাস্টমস ও বন্দর খোলা থাকবে এবং লোড আনলোড প্রক্রিয়া স্বাভাবিক গতিতে চলবে।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক মামুন তরফদার জানান, ভারত থেকে একটি পত্র পেয়েছি। পত্রে লেখা আছে শারদীয় দূর্গাপুজা উপলক্ষে সরকারী ছুটি থাকার কারনে ভারতীয় ব্যবসায়ীরা ১২ অক্টোবর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত আমদানী রফতানী সংক্রান্ত কোন কাজ করবে না। এ কারনে বেনাপোল পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে চার দিন আমদানী রফতানী বন্ধ থাকবে। আমদানী রফতানী বন্ধ থাকলেও বন্দরে লোড আনলোড সহ সকল কার্যক্রম স্বাভাবিক গতিতে চলবে। আমদানী রফতানী বন্ধের এ চার দিন বেনাপোল পেট্রাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দু’দেশের মধ্যে পাসপোর্ট যাত্রী চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

Sharing is caring!