• ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:১১
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

দেশে খাদ্যের জন্য এখন আর হাহাকার নেই: প্রধানমন্ত্রী

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত নভেম্বর ১৭, ২০২১, ১৭:৫৭ অপরাহ্ণ
দেশে খাদ্যের জন্য এখন আর হাহাকার নেই: প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

ডেস্ক রিপোর্ট ।।

ন্নত দেশগুলোতে এখনো খাদ্যের জন্য হাহাকার চলছে সেখানে বাংলাদেশে হাহাকার নেই বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার বিকালে গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই কথা বলেন। যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স সফর সম্পর্কে জানাতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

কৃষক এবং সাধারণ মানুষের কথা বিবেচনা করে সরকার ডিজেল ও কেরোসিনের দাম পুনর্বিবেচনা করবে কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, বিশ্বে যখন তেলের দাম বেড়েছে সেখানে আমাদের তেল কিনে আনতে হয়। বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়ার পর পার্শ্ববর্তী দেশেও দাম বাড়িয়েছে। সরকার প্রতি বছর ডিজেলে ২৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে। কেরোসিন ও ডিজেলের পেছনে বছরে ৫৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিই। কিন্তু আর কত ভতুর্কি দেব? বাজেটের সব টাকা ভর্তুকি দিলে কিন্তু দেশে উন্নয়ন হবে না।

সরকারপ্রধান বলেন, আমরা সারের দাম কমিয়েছি। সব ক্ষেত্রে কৃষককে সহযোগিতা করছি। বিনা পয়সায় খাবার দিচ্ছি। করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছি।

শেখ বলেন, গ্যাস বিক্রি করতে রাজি না হওয়ায় ২০০১ সালে ক্ষমতায় আসতে পারিনি৷ কিন্তু এতে আমার আফসোস নেই। কারণ দেশ বিক্রি করে ক্ষমতায় আসতে চাইনি। ট্যাক্স দেওয়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে তো মানুষ ভালোভাবে খাচ্ছে, চলছে। কিন্তু প্রকৃত ট্যাক্স দিচ্ছে কয়জন?

বাস ও অন্যান্য পরিবহনের ভাড়া বাড়ানো নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি দেশে ছিলাম না ঠিক, তবে দেশের সঙ্গে ছিলাম না তা তো নয়। ডিজিটাল যুগ। বিভিন্ন মাধ্যমে বারবার যোগাযোগ হয়েছে। যারা ভাড়া বাড়াচ্ছিল তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। এরপর একটি যৌক্তিক পর্যায়ে ভাড়া রাখা হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে পঁচাত্তরপরবর্তী সামরিক বাহিনীতে হত্যাকাণ্ড নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ওই সময় জেলখানায় যেসব ফাঁসি দেওয়া হয়েছে তার তথ্য পাওয়া যাবে। আমরা খুঁজে বের করব। এছাড়া সে সময় ফায়ারিং স্কোয়াডে যাদের হত্যা করা হয়েছে তাদেরও খোঁজ নেওয়া হবে।

১৫ আগস্টে স্বজন হারানো পরিবারগুলোকে মামলা করারও সুযোগ দেওয়া হয়নি জানিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, আমার বাবা-মা-ভাইসহ পরিবারের সদস্যদের হত্যাকাণ্ডে আমি মামলা করতে পারিনি। মামলা করতে দেওয়া হয়নি।

 বার্তাকণ্ঠ/এন

Sharing is caring!