• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২৮
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

দ্রুত তিস্তা নদীর খনন ও বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু হবে : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ২২, ২০২১, ২৩:১৩ অপরাহ্ণ
দ্রুত তিস্তা নদীর খনন ও বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু হবে : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

মোস্তাফিজুর রহমান, লালমনিরহাট।।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান এমপি বলেছেন,বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৫০ হাজার পরিবারকে ২ শতক জমির উপরে গৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হবে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।
শুক্রবার( ২২ অক্টোবর) দুপুর ২টায় লালমনিরহাটে আকস্মিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫শ পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কালে এসব কথা বলেন।
গত শুক্রবার  কালিগঞ্জ উপজেলার কাকিমা মহিমারঞ্জন স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মোঃ এনামুর রহমান ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে এ সব ত্রাণ  সামগ্রী বিতরণ  করেন ।
জেলা প্রশাসন ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে এ ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আবু জাফর।এতে বক্তব্য রাখেন লালমনিরহাট ১নং আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রাথমিক গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোতাহার হোসেন, ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মহসিন, পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আকস্মিক বন্যায় যারা ঘর হারিয়েছে ৫০ হাজার পরিবারকে ২ শতক জমিসহ ঘর নির্মান করে দেয়া হবে। এছাড়াও তিস্তা নদী খনন ও বাঁধ নির্মাণে জাইকা ও বাংলাদেশ সরকার ডেল্টা প্লানের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।
এছাড়াও কাজ শুরু না হওয়া পর্যন্ত আমরা এ মুহূর্তে নদী  ভাঙ্গন এলাকার জন্য ২শত বািন্ডিল ঢেউটিন, প্রতিটি জেলায় ৫০ মেঃটন করে চাল, ৫ লক্ষ করে টাকা, কৃষকের ক্ষতির জন্য ২ লক্ষ টাকা, গবাদী পশুর জন্য ২ লক্ষ টাকা ও ১ হাজার প্যাকেট করে শুকনা খাবার দেয়া হচ্ছে।
মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা যত দ্রুত সম্ভব তিস্তা নদীর খনন কাজ শুরু করব। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে একটু  ধৈয্য ধরতে হবে। এছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার রাস্তা ঘাটের তালিকা করে আমার মন্ত্রণালয়ে দিলে দ্রুত রাস্তার  কাজ শুরু করা হবে।
প্রতিমন্ত্রী ত্রাণ বিতরণ শেষে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কাকিনা-রংপুর-মহিপুর মহাসড়ক পরিদর্শন করেন এবং দ্রুত রাস্তাটি সংস্কার করে জনগণের জন্য খুলে দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন।
 বার্তাকণ্ঠ /এন

Sharing is caring!