• ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:০৮
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

পশ্চিমবঙ্গে নতুন দলের প্রস্তুতির খবরে গরম রাজনৈতিক মহল

bmahedi
প্রকাশিত নভেম্বর ২০, ২০১৯, ২০:০৫ অপরাহ্ণ
আলহাজ্ব মতিয়ার রহমান :=

২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে নতুন রাজনৈতিক দলের প্রস্তুতির খবরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক মহল গরম হয়ে উঠেছে।

আগামী বিধানসভা নির্বাচনে আসাউদ্দিন ওয়াইসির অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন (এআইএমআইএম) রাজ্যের ২৯৪টি বিধানসভা কেন্দ্রেই প্রার্থী দেওয়ার প্রাথমিক পরিকল্পনা করেছে। গত মাসে বাংলা বিহার সীমানার কিষানগঞ্জ উপনির্বাচনে জয় পাওয়ার পর রাজ্যে সংগঠন বিস্তারে আরও জোর দিয়েছে দলটি।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বুধবার এআইএমআইএম-র মুখপাত্র ও রাজ্যে দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত অসিফ ওয়াকার বলেন, পশ্চিমবঙ্গের সব গ্রামেই আমাদের দলের অস্তিত্ব রয়েছে। ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটে আমরা লড়াই করব। এই প্রথমবারের জন্য সব আসনেই প্রতিদ্বন্দ্বিতার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে এআইএমআইএম এর পরিকল্পনার খবরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরব হয়েছেন।

সোমবার কোচবিহারে তৃণমূলের একটি কর্মিসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজনীতিতে হিন্দু চরমপন্থার মতোই সংখ্যালঘুদের মধ্যেও চরমপন্থা প্রকাশ পাচ্ছে। বিজেপির কাছ থেকে ওরা টাকা নেয়। এদের কথায় কান দেবেন না।

মমতার এই মন্তব্যের জবাবে মঙ্গলবার আসাউদ্দিন ওয়াইসি টুইটে জানান, এআইএমআইএম বাংলায় পোক্ত হচ্ছে। আমাকে নিশানা করে আপনি বাংলার মুসলমানদের এই বার্তাই দিলেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভয় ও হতাশা ভুগছেন।

প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যে মুসলমান ভোটের সিংহভাগই তৃণমূলের দখলে। এআইএমআইএম বিধানসভা নির্বাচনে সব আসনে প্রার্থী দিলে সংখ্যালঘু ভোট ব্যাংকে তৃণমূলের একক আধিপত্য থাকবে কিনা, তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে আলোচনা চলছে।

Sharing is caring!