• ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:১০
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

প্রেমিকাকে হত্যার পর প্রেমিকের আত্মহত্যা

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ৭, ২০২১, ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ
প্রেমিকাকে হত্যার পর প্রেমিকের আত্মহত্যা

ফাইল ছবি

ঢাকা ব্যুরো ।। 
গাজীপুরের কালীগঞ্জে কথিত প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে, গলা কেটে প্রেমিকাকে হত্যার পর ওই যুবক নিজের পেটে ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যা করেছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে এর কারণ জানা যায়নি। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১০টার দিকে ওই যুবকের বাড়ি থেকে নিহত দু’জনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। স্থানীয় ইউপি সদস্য কাওসার আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
নিহতরা হলেন, কালীগঞ্জ উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের সাতানীপাড়া গ্রামের মৃত সমর গমেজের ছেলে হৃদয় গমেজ (২৫) এবং একই উপজেলার বান্দাখোলা গ্রামের স্বপন রোজারিও’র মেয়ে ইভানা রোজারিও (২২)। হৃদয় বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকে চাকরি করতেন এবং ইভানা নার্সিংয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন।
কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুস সালাম জানান, হৃদয় ও ইভানার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে হৃদয়কে বাড়িতে রেখে তার মা ও চাচা জমি সংক্রান্ত কাজে কালীগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে যান। সন্ধ্যার দিকে বাড়ি ফিরে হৃদয়ের মা ভেতর থেকে ঘরের দরজা-জানালা আটকানো অবস্থায় পান। অনেক ডাকাডাকি করেও হৃদয়ের কোনও সাড়া-শব্দ পাননি। তবে সেসময় ঘরের ভেতরে উচ্চশব্দে গান বাজছিল। এক পর্যায়ে প্রতিবেশীরা উঁকি দিয়ে ঘরের ভেতরে ইভানা ও হৃদয়ের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন।
পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে। এসআই আব্দুস সালাম আরও জানান, ইভানার লাশের উপরে ছুরি হাতে হৃদয়ের লাশ পড়ে ছিল। নিহত ইভানার গলায়, ঘাড়ে ও গালে এবং হৃদয়ের পেটে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পারিপার্শ্বিক অবস্থা দেখে ধারণা করা হচ্ছে, বাড়ির লোকজনের অনুপস্থিতির সুযোগে প্রেমিকা ইভানাকে ঘরে ডেকে এনে তাকে গলা কেটে ও এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে হৃদয়। পরে নিজের পেটে ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যা করে।
এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন জানিয়ে পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Sharing is caring!