• ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:০৭
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

ফের মালয়েশিয়ায় রাজ্যভিত্তিক লকডাউন

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ৩, ২০২১, ১১:১৩ পূর্বাহ্ণ
ফের মালয়েশিয়ায় রাজ্যভিত্তিক লকডাউন

সংগৃহীত ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

মালয়েশিয়ায় করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় আবারও ২ সপ্তাহের জন্য দেশটির পেরাক ও সাবাহ রাজ্যে চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে ইনহ্যান্সড মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (ইমসিও) ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় শনিবার (০২ অক্টোবর) দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মহাপরিচালক দাতুক রজি মোহাম্মদ সাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, আগামি ৩ অক্টোবর থেকে ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত পেরাক রাজ্যের তানজুং রামবুতানের কাম্পুং ওরাং আসলি চাদাক এবং ৪ অক্টোবর থেকে ১৭ অক্টোবর সাবাহ’র রানাউয়ের কাম্পুং মোকোদৌতে চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে ইনহ্যান্সড মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (ইমসিও) এর আওতায় থাকবে।
তিনি আরও বলেন, কাম্পুং ওরাং আসলি উলু পারেহ, বেনটং এবং পাহাংয়ে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত ইনহ্যান্সড মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (ইএমসিও) বহাল থাকলেও তা আবারও বাড়িয়ে আগামি ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত বহাল থাকবে। রাজ্যগুলোর বর্তমান করোনা পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে জাতীয় সুরক্ষা কাউন্সিল ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সম্প্রতি দেশটির প্রধানমন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকোব জানিয়েছেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও বিশ্লেষণের ভিত্তিতে দেশের প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যার ৯০ শতাংশ মানুষ ২য় ডোজের টিকা নেয়া সম্পন্ন করলে আন্তঃরাজ্য ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হবে। তবে, এখনও পর্যন্ত দেশটিতে প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যার প্রায় ৮৬ দশমিক ৮ শতাংশ মানুষ ২য় ডোজের টিকা নেয়া সম্পন্ন করেছেন বাকি ৩ দশমিক ২ শতাংশ মানুষের মাঝে টিকা দেয়া সম্পন্ন হলেই বহু প্রতিক্ষিত আন্তঃরাজ্য ভ্রমণের অনুমতি পাবেন দেশটিতে বসবাসরত সকল নাগরিক।  সে সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকরা যেতে পারবেন দেশটির বিভিন্ন রাজ্যের বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে।  
এদিকে দেশটিতে শনিবার পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৯১৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১২১ জনের। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৯ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ২৬ হাজার ৪৫৬ জন এবং সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ২০ লাখ ৭০ হাজার ৭১৫ জন।

Sharing is caring!