• ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:৫৪
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

বিমানবন্দরে যাত্রীদের করোনার পিসিআর পরীক্ষার নির্দেশ

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ৬, ২০২১, ১৪:১১ অপরাহ্ণ
বিমানবন্দরে যাত্রীদের করোনার পিসিআর পরীক্ষার নির্দেশ

বিমানবন্দরের ছবি: সংগৃহীত

স্টাফ রিপোর্টার ।।

বিদেশ যাওয়ার জন্য করোনার টেস্ট করার যে বাড়তি ভোগান্তি তা আর থাকছে না। এখন থেকে বিমানবন্দরেই বিদেশগামীদের করোনা পিসিআর টেস্ট করা হবে। এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এই নির্দেশনা দেয়া হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ও সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান।

মন্ত্রিসভা বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় দুটি বিষয় এসেছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গায় (দেশ) এখন নতুন করে কন্ডিশন দেওয়া হচ্ছে যে, ফ্লাইয়ের ৪ থেকে ৮ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর টেস্ট করতে হবে। বেশ কয়েকটি দেশ থেকে (এই শর্ত) দিয়েছে। সেজন্য গত কয়েক দিন থেকে আলোচনা চলছিল, আজকে এটা প্রিসাইজ করে দেওয়া হয়েছে- ভেরি কুইকলি দুই বা তিনদিনের মধ্যে এয়ারপোর্টেই একটা টেস্টিং ফ্যাসিলিটিজ করা। অন্যান্য দেশেও যেরকম আছে। যাতে ফ্লাই করার চার ঘণ্টার মধ্যে ওনারা টেস্ট করতে পারেন।

তিনি বলেন, ‘এখন পৃথিবীর বড় বড় এয়ারপোর্টে কুইক, ইনস্ট্যান্টলি (করোনা পরীক্ষা) করতে পারবেন। আমরা বলি ৪৮ ঘণ্টা আগে টেস্ট লাগবে। আমাদের লোকেরা যে দেশে আছে, তারা সেখান থেকে পরীক্ষা করে আসবে। অনেক দেশ আছে ৪ থেকে ৮ ঘণ্টা সময় দেয়।

‘যে যে দেশে যাবে তার যে রকম রিকোয়ারমেন্ট লাগবে, যাতে এয়ারপোর্ট থেকেই সে টেস্ট করে নিতে পারে।

বিমানবন্দরে কবে থেকে পিসিআর টেস্ট চালু হবে- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আজকেই ইনস্ট্রাকশন দিয়ে দেওয়া হয়েছে। যত কুইকলি পারে দুই-তিনদিন/সাতদিন, কুইক টাইমে না হলে তো আপনি ওই দেশে যেতে পারছেন না।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আমাদের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট যাচ্ছে তিন জায়গা (বিমান বন্দর) থেকে। প্রাইমারিলি ঢাকা বিমানবন্দরে হবে কিন্তু আলোচনার মধ্যে তিনটি (ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটের বিমানবন্দর) এয়ারপোর্টই আছে।’

কত সময়েরে মধ্যে রিপোর্ট দিতে পারবে- এ বিষয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা কথা বলে দেখেছি ৪ ঘণ্টার মধ্যেই রিপোর্ট দিতে পারবে।

 

Sharing is caring!