• ২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:২৫
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

বিশ্বব্যাংক বলছে ৫.১, সরকারের লক্ষ্য ৭.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত জুন ৯, ২০২১, ১৫:৪৭ অপরাহ্ণ
বিশ্বব্যাংক বলছে ৫.১, সরকারের লক্ষ্য ৭.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি

ডেস্ক রিপোর্ট ##

আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫ দশমিক ১ শতাংশ হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। গত জানুয়ারির রিপোর্টের তুলনায় যা ১ দশমিক ৭ শতাংশ বেশি।

মঙ্গলবার (৮ জুন) রাতে ওয়াশিংটন থেকে বিশ্বব্যাংক গ্লোবাল ইকোনোমিক প্রসপেক্টাস শীর্ষক বৈশ্বিক রিপোর্টের জুন মাসের আপডেট প্রকাশ করা হয়েছে।

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৬ শতাংশ হবে বলে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়।

তবে, সরকার চলতি অর্থবছরে ৬ দশমিক ১ শতাংশ ও আগামী অর্থবছরে ৭ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।

বিশ্বব্যাংক বলছে, ২০২২ সালে ভারতের জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন হবে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। ভারতের পরই অবস্থান করবে বাংলাদেশ। সেসময় পাকিস্তান ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে সক্ষম হবে।

সম্প্রতি বিবিএস মহাপরিচালক মো. তাজুল ইসলাম জিডিপি প্রবৃদ্ধি বাড়ছে না কমছে এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, কমেছে বটে। কারণ, করোনাকালে সবকিছু বন্ধ ছিল।

প্রবৃদ্ধি কমে ৫ শতাংশের নিচে নেমেছে কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, এটা কমেছে। যাই হোক, এটা অনুমোদন না হয়ে আসা পর্যন্ত কিছু প্রকাশ করতে পারছি না। তবে ৫ শতাংশের নিচে নেমেছে প্রবৃদ্ধি। তারপরও অনুমোদন হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে।

এর আগে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) সাময়িক হিসাবে জানিয়েছিল, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। চলতি অর্থবছরে ৮ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরেছে সরকার। বিশ্বব্যাংকসহ সব দাতা সংস্থাগুলো আগেই বলছে, এত প্রবৃদ্ধি অর্জন সম্ভব নয়।

গত জানুয়ারি মাসে প্রকাশিত গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস প্রতিবেদনে বিশ্বব্যাংক বলেছিল, চলতি অর্থবছর শেষে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হবে ১ দশমিক ৬ শতাংশ। পরে গত মার্চ মাসে প্রকাশিত ‘সাউথ এশিয়া ইকোনমিক ফোকাস স্প্রিং ২০২১ : সাউথ এশিয়া ভ্যাকসিনেটস’ প্রতিবেদনে এ পূর্বাভাস বাড়িয়ে ৩ দশমিক ৬ শতাংশে উন্নীত করে আন্তর্জাতিক সংস্থাটি।

Sharing is caring!