• ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:৪৮
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

বিশ্বে ফের বেড়েছে সংক্রমণ-প্রাণহানি

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ৬, ২০২১, ১২:১৩ অপরাহ্ণ
বিশ্বে ফের বেড়েছে সংক্রমণ-প্রাণহানি

সংগৃহীত ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

চীন থেকে প্রাদুর্ভাব হওয়া করোনাভাইরাস মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে।  

গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় সাড়ে সাত হাজার মানুষ। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে চার লাখ আট হাজার।

এসময়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। অন্যদিকে দৈনিক মৃত্যুতে এরপরই রয়েছে রাশিয়া, ব্রাজিল ও মেক্সিকো।

জরিপ পর্যালোচনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের আজ বুধবার (৬ অক্টোবর) সকালের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ২৩ কোটি ৬৬ লাখ ২ হাজার ৬৫৮ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪৮ লাখ ৩১ হাজার ৭৩৮ জনের। আর ভাইরাসটিতে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছে ২১ কোটি ৩৭ লাখ ৩৫ হাজার ১৪৮ জন।

বিশ্বের অনেক দেশেই মিলেছে করোনার নতুন ধরন। যা আগের ভাইরাস থেকে অনেকটা শক্তিশালী। আর করোনার অতিসংক্রামক ডেল্টা ধরন ছড়িয়েছে বিশ্বের ১৩২টি দেশে।

এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা সাত লাখ ছাড়িয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ৪৭ লাখ ৮১ হাজার ২০০ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ২৪ হাজার ৭২৮ জনের।

বিশ্বের দ্বিতীয় অন্যতম জনবহুল দেশ ভারত করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় রয়েছে যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ৩৮ লাখ ৭১ হাজার ৮৮১ জনে পৌঁছেছে। মারা গেছে মোট ৪ লাখ ৪৯ হাজার ৫৬৮ জন।

ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যার দেশের তালিকায় রয়েছে যথাক্রমে তৃতীয় ও দ্বিতীয় স্থানে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ২ কোটি ১৪ লাখ ৯৯ হাজার ৭৪ জন ও মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯৮ হাজার ৮৭১ জনের।

আক্রান্ত দেশের তালিকায় যুক্তরাজ্য আছে চতুর্থ স্থানে। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৭৯ লাখ ৬৭ হাজার ৯৮৫ জনে পৌঁছেছে। মারা গেছে মোট ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৫২ জন।

আক্রান্তের তালিকায় আবার পঞ্চম স্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ৭৬ লাখ ৩৭ হাজার ৪২৭ জন ও মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ১১ হাজার ৬৯৬ জনের।

মেক্সিকো আক্রান্ত দেশের তালিকায় ১৫তম স্থানে থাকলেও সর্বাধিক মৃতের সংখ্যায় রয়েছে চতুর্থ স্থানে। মহামারি শুরুর পর থেকে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩৬ লাখ ৯১ হাজার ৯২৪ জনে দাঁড়িয়েছে ও মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৯ হাজার ৮৯৪ জনের।

তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান এখন ২৯ নম্বরে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৫৯ হাজার ৪৫২ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ২৭ হাজার ৬১৪ জন। আর ১৫ লাখ ২০ হাজার ২৯৬ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

চীনে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যু হয় গত বছরের ৯ জানুয়ারি। তবে তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি। আর ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ে। গত ২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে।

গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে ২০ জানুয়ারি জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

Sharing is caring!