• ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:১৯
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

ভারত থেকে ফিরে আসা ১৫০০ যাত্রীর মধ্যে ১৮ জনই করোনা পজিটিভ

bmahedi
প্রকাশিত এপ্রিল ২০, ২০২১, ১৬:৩১ অপরাহ্ণ
ভারত থেকে ফিরে আসা ১৫০০ যাত্রীর মধ্যে ১৮ জনই করোনা পজিটিভ
নজরুল ইসলাম ## চলতি লকডাউনে প্রথম ৬ দিনে বেনাপোল আšতর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে ভারত থেকে ফিরে আসা ১৫০০ বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীর মধ্যে ১৮ জনই করোনা পজিটিভ। করোনা পজিটিভ যাত্রীদের পুলিশ প্রটেকশনে বেনাপোল চেকপোস্ট থেকে যশোর জেনাে রল হাসপাতাল করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানান।

 

গত ৬ দিনে চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে দেশে ফিরেছে ১৫০০ বাংলাদেশি। করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট থাকা সত্বেও দেশে ফিরে আসা যাত্রীদের বেনাপোল ইমিগ্রেশনের স্বাস্থ্য বিভাগে স্বাস্থ্য পরীা করে ১৮ জন যাত্রীর দেহে করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়েছে।
ফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী সহ দুই দেশের মধ্যে যাতায়াতকারী পাসপোর্টধারী যাত্রীরা। তবে সতর্কতাই মিলতে পারে মুক্তি এমন মšতব্য যাত্রীদের। স্বাস্থ্যকর্মীরাও দিচ্ছেন সচেতনতার নানান পরামর্শ।

বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে একমাত্র বেনাপোল ও ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন দিয়ে স্থলপথে দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী যাতায়াত সচল রয়েছে। ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞায় দেশের অন্যান্য স্থলপথে ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম সায়মিক বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে ভারত ভ্রমণের েেত্র গত বছরের জুলাইয়ের পর ইস্যুকৃত নতুন ভিসা আর ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আরটিপিসিআর থেকে করোনা পরীার নেগেটিভ সনদ লাগছে। এপথে যারা যাতায়াত করছেন তাদের ৯৫ শতাংশ মেডিকেল ভিসায়। ৫ শতাংশ বিজনেস, স্টুডেন্ট আর কুটনৈতিক ভিসায় যাতায়াত করছে। দুইবার করোনা পরীায় তিন হাজারেরও অধিক টাকা খরচে বেশ কষ্ট পোহাতে হচ্ছে চিকিৎসা সেবীদের।

 

বেনাপোল ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার সুবাশিষ রায় জানান, করোনা পজিটিভ যাত্রীদের পুলিশ প্রটেকশনে বেনাপোল চেকপোস্ট থেকে যশোর জেনারেল হাসপাতাল করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ভারত থেকে ফিরে আসা অধিকাংশ যাত্রীদের বেনাপোলের বিভিন্ন হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারাইনটিনে রাখা হচ্ছে। পরবর্তিতে তাদের নমুনা পরীক্ষা করা হবে।

 

চেকপোস্ট স্বাস্থ্য বিভাগে সতর্কতা জারি রয়েছে। লকডাউনে গত ০৬ দিনে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারত থেকে ফিরে আসা ১৫০০ বাংলাদেশির যাত্রীর মধ্যে ১৮ জন করোনা আক্রাšত। করোনা নেগেটিভ সনদ থাকা শত্বেও এমন ১০৬ জনের স্বাস্থ্য পরীা করে ১ জনের দেহে করোনা পজিটিভ মিলেছে।

Sharing is caring!