• ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৫৩
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

মাইক্রোবাস চালকের ছুরিকাঘাতে আহত কুবি শিক্ষার্থী

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত নভেম্বর ১১, ২০২১, ২২:৩৯ অপরাহ্ণ
মাইক্রোবাস চালকের ছুরিকাঘাতে আহত কুবি শিক্ষার্থী
কৌশিক আহমেদ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা।। 
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার পদুয়ার বাজার এলাকায় মাইক্রোবাসচালকের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। আহত শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের মাহমুদুল হাসান সুজন। তাকে রক্ষা করতে গেলে মারধরের শিকার হন সুজনের সহপাঠি নূর মোহাম্মদ।
বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে চারটার দিকে পদুয়া বাজার বিশ্বরোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কোটবাড়ি বিশ্বরোড থেকে পদুয়ার বাজারগামী ঢাকা মেট্রো চ-১৪১৮৭৫ নাম্বারের মাইক্রোবাসে উঠেন সুজন ও নূর মোহাম্মদ। সিটে বসাকে কেন্দ্র সুজন ও তার বন্ধু নূর মোহাম্মদের সঙ্গে চালকের বাকবিতণ্ডা হয়। এসময় অকথ্য ভাষায় গালি দেন চালক। পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে গাড়ি থেকে নেমে গালি দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে সুজনকে ছুরিকাঘাত করেন চালক। এসময় নূর মোহাম্মদ প্রতিবাদ জানালে তাকেও মারধর করা হয়। পরে গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায় চালক।
আহত সুজন বলেন, আমরা ফেনী যাওয়া জন্য পদুয়া বাজার যাচ্ছিলাম। মাইক্রোবাসে উঠার পর চালকের সঙ্গে আমাদের বাকবিতণ্ডা হয়। এ নিয়ে চালক আমাদের উপর রেগে যান। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ছুরি দিয়ে আক্রমণ করে পালিয়ে যান। আমার সঙ্গে থাকা নূর মোহাম্মদ ও কয়েকজন পথচারী আমাকে চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যায়।
নূর মোহাম্মদ বলেন, আমাদের সঙ্গে মাইক্রোবাসচালক খারাপ আচরণ ও গালাগালি করছিল। প্রতিবাদ জানালে আমাদের মারধর করে পালিয়ে যায়। পরে পাশের ফার্মেসিতে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিই আমরা।
কুমিল্লা সদর দক্ষিণ সার্কেলের ট্রাফিক পরিদর্শক রওশন মুরাদ বলেন, বিষয়টি অবগত হয়েছি। ভুক্তভোগীকে নিয়ে গাড়ির মালিক ও থানার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বসে মীমাংসা করার চেষ্টা করব। অন্যথায় থানার মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, শিক্ষার্থীকে মারধরের বিষয়টা জানতে পেরেছি। সদর দক্ষিণ সার্কেলের ট্রাফিক পরিদর্শককে বিষয়টি অবগত করেছি। পরিবহন মালিক পক্ষের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বসে বিষয়টি সমাধান করা হবে।
 বার্তাকণ্ঠ /এন

Sharing is caring!