• ২০শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:৫১
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

মুমিনুল-লিটনের সেঞ্চুরির আক্ষেপ, লিড নিয়ে দিন শেষ —

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত জানুয়ারি ৩, ২০২২, ১২:১১ অপরাহ্ণ
মুমিনুল-লিটনের সেঞ্চুরির আক্ষেপ, লিড নিয়ে দিন শেষ —

স্পোর্টস ডেস্ক ।।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনে অর্ধশতকের দেখা পেলেও মুমিনুলের ১২ এবং লিটনের ১৪ রানের আক্ষেপ থেকে যায়। তবে শতক না পেলে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে দলকে এনে দিয়েছেন বিশাল সংগ্রহ। তৃতীয় দিনশেষে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ৪০১ রান তুলেছে টাইগাররা। তাতেই ৭৩ রানে লিড পেয়েছে বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় দিনের খেলায় ২ উইকেটে ১৭৫ রানে দিন শেষ করেছিলো রাসেল ডোমিঙ্গার শিষ্যরা। তবে তৃতীয় দিনের শুরুটা ভালো হয়নি সফরতকারীরা। এদিন ব্যক্তিগত রানের খাতায় মাত্র ৮ রান যোগ করতে পেরেছেন তিনি। নেইল ওয়েগনারের করা দিনের তৃতীয় ওভারের শেষ বলে নিকোলসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন মাহমুদুল হাসান জয়। আউট হওয়ার আগে করেন ৭৮ রান। ২০৮ বলে খেলা এই ইনিংসটি ৭টি চারে সাজানো।

এদিকে পরের উইকেট ব্যাট করতে নেমে ৫৩ বল খেলতে পেরেছেন দলের অভিজ্ঞ ব্যাটার মুশফিকুর রহিম। ব্যক্তিগত ১২ রানে ট্রেন্ট বোল্টের করা বলে বোল্ড আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন তিনি।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে নিয়ে ক্রিজে খুঁটি গেড়ে ব্যাট করতে থাকেন মুমিনুল হক। এ সময় দুজন মিলে তুলে ১৫৮ রানের জুটি। আর এরই মধ্যে ফিফটি পূর্ণ করেন মুমিনুল ও লিটন। সেঞ্চুরির পথেই এগোচ্ছিলেন মুমিনুল। কিন্তু ট্রেন্ট বোল্টের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়লে আর সেঞ্চুরি করা হয়নি তার। আউট হওয়ার পূর্বে করেন ৮৮ রান। ২৪৪ বলে খেলা তার এই দুর্দান্ত ইনিংসটি ১২টি চারে সাজানো।

এদিকে একই পথে হাঁটলেন লিটন কুমার দাসও। মুমিনুল আউট হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। ট্রেন্ট বোল্টের করা বলে টম ব্লান্ডেলের হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে করেন ৮৬ রান। ১৭৭ বলে খেলা ইনিংসটি ১০ চার সাজানো।

মুমিনুল-লিটন আউট হলে অলআউট হওয়ার শঙ্কায় তৈরি হয়েছিলো। কিন্তু ইয়াসির আলি রাব্বি এবং মেহেদি হাসান মিরাজের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে ভালোভাবেই দিনশেষ করে সফরকারীরা। ৩৮ বলে ২০ রানে মিরাজ এবং ৩৫ বলে ১১ রানে ইয়াসির আলি রাব্বি অপরাজিত রয়েছেন।এদিকে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে তিনটি করে উইকেট নেন নেইল ওয়েগনার ও ট্রেন্ট বোল্ট।

Sharing is caring!