মেলেনি অ্যাম্বুলেন্স, মোটরসাইকেলে মায়ের মৃতদেহ নিয়ে শ্মশানে ছেলে!

64

ইমরান হোসেন আশা ## করোনাভাইরাসে বিধ্বস্ত অবস্থা ভারতে। ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে সেখানে। করোনায় মৃতদের সৎকার ও আনুসঙ্গিক কার্যক্রমে হিমশিম খাচ্ছে সংশ্লিষ্টরা। এই অবস্থায় ফের প্রকাশ্যে এলো করোনায় মৃত রোগীর দেহ সৎকার নিয়ে মর্মান্তিক ঘটনার খবর। অন্ধ্রপ্রদেশে অ্যাম্বুলেন্সের অভাবে করোনায় মৃত নারীকে মোটরসাইকেলে চাপিয়ে শ্মশানে নিয়ে গেলেন ছেলে ও নাতি।

 

মঙ্গলবার এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাক্কুলাম জেলায়। জানা গিয়েছে, করোনায় মৃত ওই মহিলার নাম মান্দাসা মন্ডল (৫০)। তার শরীরে করোনার লক্ষণ থাকায় কোভিড টেস্টের জন্য তাকে স্থানীয় ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হলে করোনা রিপোর্ট হাতে আসার আগেই সেখানে মারা যান তিনি। খবর ইন্ডিয়া টুডের

এই বিষয়ে মৃতের ছেলে জানিয়েছেন, ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বাইরে তার মা মারা গেলে সেখানে তারা অ্যাম্বুলেন্সের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। ঘটনার অনেক্ষণ পরও একটা অ্যাম্বুলেন্সও জোগাড় না হওয়ায় বাধ্য হয়ে তারা নিজেদের বাইকে মৃত মাকে চাপিয়ে গ্রামের শ্মশানে সৎকারের জন্য নিয়ে আসেন।

 

ভারতে প্রতিদিনই সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা আগের রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। প্রচণ্ড অক্সিজেন সংকটে মৃত্যু হয়েছে বহু মানুষের। মর্গ ও শ্মশানে ভিড় পড়ে গেছে। শ্মশানে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় দিল্লিসহ কয়েক রাজ্যে গণচিতা তৈরি করা হয়েছে। তাতেও কুলিয়ে উঠতে পারছেন না সংশ্লিষ্টরা। খোঁড়া হচ্ছে গণকবর এবং মরদেহ পোড়াতে বানানো হয়েছে অস্থায়ী শ্মশান। জাত-ধর্ম ভুলে মৃতদেহ সৎকারে সহযোগিতা করছে মুসলিমরাও।

 

গত একদিনে সব রেকর্ড পেছনে ফেলে তিন হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৬২ হাজারের বেশি মানুষ। মোট মৃত্যু দুই লাখ পার করেছে।