• ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:৩০
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

রাঙ্গুনিয়ার ১৩ ইউপিতে ভোটের মাঠে কোমর বেঁধে নেমেছে মেম্বার প্রার্থীরা

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত নভেম্বর ১৮, ২০২১, ১৩:৪৯ অপরাহ্ণ
রাঙ্গুনিয়ার ১৩ ইউপিতে ভোটের মাঠে কোমর বেঁধে নেমেছে মেম্বার প্রার্থীরা
এম. মতিন, চট্টগ্রাম ব্যুরো ।।
গামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ১৩ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটের মাঠে কোমর বেঁধে নেমেছেন মেম্বার প্রার্থীরা। প্রার্থীদের এমন পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে উত্তর রাঙ্গুনিয়ার লালানগর, দক্ষিণ রাজানগর, ইসলামপুর ও ১নং রাজানগরের জনপদ। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীরা ভোটের মাঠে ঝাঁপিয়ে পড়ছেন জোরেশোরে।
সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। ভোটারদের নিজেদের পক্ষে আনার জন্য দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। পাশাপাশি কর্মী সমর্থকদের নিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন উঠান বৈঠক ও পথসভা। বের করছেন মোটরসাইকেল ও ভ্যান শোভাযাত্র। অনেকে ভোটার মাঠে নেমে নাওয়া খাওয়াই প্রায় ছেড়ে দিয়েছেন।
এদিকে চায়ের দোকান, মুদি দোকান ও বাজারঘাট সরগরম হয়ে উঠেছে ভোটের হাওয়ায়। ভোট এখন  এলাকার মানুষের প্রধান আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কে হচ্ছেন চেয়ারম্যান, কে হচ্ছেন এলাকার মেম্বার। এ নিয়ে যেন বিতর্কের শেষ নেই। যে যাকে পছন্দ করেন, তার পক্ষে সাফাই গাইতেও কেউ বাদ দিচ্ছেন না।
সরেজমিনে গতকাল ইসলাম পুর ও ১নং রাজানগরের ৪নং ওয়ার্ডের ভরনছড়ি, দক্ষিণ রাজানগর ও লালানগরে গিয়ে দেখা গেছে, কামাল হোসেন তালুকদার (বৈদ্যুতিক পাখা) আজাদ নূর তালুকদার (তালা), নুরুল আবছার তালুকদার (তালা), সহিদুল ইসলাম (ফুটবল), মীর মোঃ হানিফ সওদাগর (টিউবওয়েল) ও মোসলেম সিকদার (টিউবওয়েল) ভোটারদের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন। কেউ প্রতিদ্বন্দ্বী কাউকে ছাড় দিতে নারাজ।
তবে, প্রত্যেক প্রার্থী নিজের অবস্থান টিকিয়ে রাখতে নানামুখি কৌশল অবলম্বন করতে দেখা গেছে। দোয়া ও ভোট প্রার্থনার পাশাপাশি উন্নয়নের বুলি ও প্রতিশ্রুতি দিতে করো যেন কম নেই।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বয়োজীদ আলম বলেন, ‘আমরা আশা করছি আগামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ১৩ ইউপি নির্বাচন শান্তিপূর্ন ও প্রতিদ্বন্দিতামুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে। এ ১৩ ইউনিয়নে  মোট ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ১২ হাজার ৪৩৭ জন। পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১২ হাজার ২৭ জন ও নারী ভোটার রায়েছে ১ লাখ ৪ শত ১০ জন।
 
 বার্তাকণ্ঠ/এন

Sharing is caring!