• ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৪৩
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

রাজপ্রাসাদ ছেড়ে প্রেমিকের বুকেই মাথা রাখলেন রাজকন্যা

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ২৭, ২০২১, ১৩:২৮ অপরাহ্ণ
রাজপ্রাসাদ ছেড়ে প্রেমিকের বুকেই মাথা রাখলেন রাজকন্যা

সংগৃহীত ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

প্রেমের জন্য রাজত্ব ত্যাগের নজির ইতিহাসে অনেক আছে। সেটাই যেন আবারও প্রমাণ করলেন জাপানের রাজকুমারী মাকো। নানা বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে প্রেমিক কোমুরোকে বিয়ে করলেন তিনি।

মঙ্গলবার এই বিয়ের মধ্য দিয়ে রাজকীয় মর্যাদা হারাচ্ছেন তিনি। আভিজাত্য, জৌলুস সবকিছু পেছনে রেখে ভালোবাসার মানুষটিকে বানান জীবনসঙ্গী। পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে নেন চির বিদায়।

এদিন দীর্ঘদিনের সহপাঠী ও বন্ধু কেউ কোমুরোর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। রেজিস্ট্রি অফিসে খুব সাধারণভাবে বিয়ে হয় তাদের। ছিল না বাড়তি লোক সমাগম। মাকোই চেয়েছিলেন কোনো আনুষ্ঠানিকতা না করতে।

পরে এক সংবাদ সম্মেলন করেন নব দম্পতি। এসময় তার বিয়ে ঘিরে যত কাণ্ড ঘটেছে তার জন্য ক্ষমা চান মাকো। আর সারাজীবন যেন ভালোবাসার মানুষটিকে আগলে রাখতে পারেন তার জন্য আশীর্বাদ চেয়েছেন কোমুরো। মাকো বলেন, ও একজন অতুলনীয় ব্যক্তি। ওকে বিয়ে করা ছাড়া আমার কাছে আর কোনো বিকল্প ছিল না।

কোমুরো বলেন, আমি মাকোকে ভালোবাসি। তাকে নিয়েই আমি বাকি জীবনটা পার করতে চাই। এই বিয়ের মধ্য দিয়েই রাজত্ব হারালেন মাকো। সম্পদ কিংবা পদমর্যাদা কোনো কিছুকেই পাত্তা না দিয়ে ভালোবাসার টানে সাধারণ জীবনযাপনকেই বেছে নিলেন এই রাজকুমারী।

জাপানের রাজ পরিবারের নিয়ম অনুযায়ী, রাজকুমারীরা রাজবংশের বাইরের সাধারণ পরিবারের কাউকে বিয়ে করলে হারাতে হয় পদমর্যাদা। মাকো মর্যাদার পাশাপাশি এক হাজার ২০ কোটির সম্পদ নিতেও অস্বীকৃতি জানান। বিয়ের পর যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমানোর কথা রয়েছে এই দম্পতির। সেখানে আইনজীবী হিসেবে কাজ করার কথা রয়েছে কোমুরোর।

বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন ২০১২ সালে পরিচয় হয় মাকো ও কোমুরোর। পরে পরিচয় রূপ নেয় প্রণয়ে। কিন্তু ২০১৮ সালে দেখা দেখা জটিলতা, পিছিয়ে যায় বিয়ের আয়োজন। সময় টিভি

Sharing is caring!