• ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:৩৬
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

শার্লিনের বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানির মামলা রাজ-শিল্পার

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ২১, ২০২১, ১৪:৩৭ অপরাহ্ণ
শার্লিনের বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানির মামলা রাজ-শিল্পার

ছবি: সংগৃহীত

বিনোদন ডেস্ক ।।

লিউড অভিনেত্রী শার্লিন চোপড়ার বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করলেন শিল্পা শেট্টি ও রাজ কুন্দ্রা। গত ১৪ অক্টোবর শিল্পার স্বামী রাজের বিরুদ্ধে জুহু থানায় এফআইআর দায়ের করেছিলেন শার্লিন চোপড়া। সেই এফআইআরে নাম ছিল শিল্পারও। তাঁদের বিরুদ্ধে মানসিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেন।

শার্লিন জানিয়েছিলেন, ‘আমি রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছি । তিনি আমার উপর যৌন নির্যাতন করেছেন, পাশাপাশি আমাকে ঠকিয়েছেন এবং হুমকিও দিয়েছেন।’ এই এফআইআর দায়েরের পরেই শার্লিনের বিরুদ্ধে মামহানির মামলা ঠুকে দিলেন রাজ ও শিল্পা।

ইতিমধ্যেই শার্লিন চোপড়াকে নোটিস পাঠিয়েছেন শিল্পা ও রাজের আইনজীবী। সেখানে ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি ৫০ কোটি টাকা মানহানির জন্য দাবি করা হয়েছে। নোটিসে আরও বলা হয়েছে, জনসমক্ষে কোনও মানুষের সম্মানহানি করা ঠিক নয়। যেখানে হাতে সঠিক তথ্যপ্রমাণ নেই। আর গোটা অভিযোগটাও ভুয়ো ও ভিত্তিহীন। রাজ কুন্দ্রা ও শিল্পা শেট্টির মানহানি এবং ওঁদের থেকে টাকা পাওয়াই তাঁর প্রধান লক্ষ্য। আরও বলা হয়েছে, ‘‌শার্লিন চোপড়া শিল্পা শেট্টির নাম এই সবকিছুর মধ্যে টেনে এনে মিডিয়া অ্যাটেনশন পাওয়ার চেষ্টা করছেন। বিতর্ক তৈরি করছেন। এই সব অভিযোগ শার্লিন চোপড়ার মন গড়া। ওঁর নিজের নামেই নোডাল সাইবার পুলিশ স্টেশনে মামলা রয়েছে। আমরা শার্লিন চোপড়ার বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানি মামলা করেছি।

এটা ঘটনা, কিছুদিন আগেই পর্নোগ্রাফি মামলায় রাজের বিরুদ্ধে সাক্ষী দিয়েছিলেন শার্লিন চোপড়া। এমনকি শার্লিনের পক্ষ না নেওয়ায় শিল্পার উপরও চটেছিলেন শার্লিন। রাজের নামে একটি এফআইআর করেছিলেন তিনি। যেখানে শার্লিনের দাবি ছিল রাজ কুন্দ্রা তাঁর সঙ্গে জোর করে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেছিল। নিজেকে বাঁচাতে সেই সময় নাকি বাথরুমে আশ্রয় নিতে হয় তাঁকে। সঙ্গে শার্লিনের দাবি ছিল, সেই সময় রাজ জানিয়েছিলেন শিল্পার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভাল নয়। শার্লিন দাবি করেছিলেন, তিনি চান যে সমস্ত নিরীহ মেয়েকে দিয়ে জোর করে পর্ন ছবিতে অভিনয় করানো হয়েছে, তাঁরা ন্যায়বিচার পাক। দোষীর শাস্তি হোক। প্রসঙ্গত জামিনে মুক্তি পাওয়ার কয়েক সপ্তাহ বাদেই নিজেদের আইনজীবী মারফত একটি যৌথ আইনি বিবৃতি দেন শিল্পা শেট্টি ও রাজ কুন্দ্রা। যাতে বলা হয়েছিল, ‘জনসমক্ষে আমাদের বিরুদ্ধে শার্লিন চোপড়া যা বলবেন তা মানহানি হিসেবেই ধরা হবে এবং সেটা করে আদালতের নির্দেশের অবমাননা করবেন। মন্তব্যের জন্যে শার্লিন চোপড়াকে আইনি জটিলতায় পড়তে হবে।’ এবার ঠিক সেটাই করলেন শিল্পা ও রাজ।

 বার্তাকণ্ঠ/এন

Sharing is caring!