• ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:২৩
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

শার্শায় স্বতন্ত্র ও নৌকার সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ১২

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত নভেম্বর ৮, ২০২১, ১৭:২৭ অপরাহ্ণ
শার্শায় স্বতন্ত্র ও নৌকার সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ১২
বেনাপোল প্রতিনিধি।। 
শোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়ায় ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল খালেক সমর্থকদের হামলায় আহত হয়েছেন ১২ জন নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা।
রোববার রাতে সোনাতনকাটি বামুনিয়া বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। মারাত্মক আহত আনোয়ার হোসেন আনার (৪৫), আব্বাস আলী কবির (৪৫), মজিদ হোসেন (২৬), আরিফ হোসেন (২১), আলফি হাসান (২৮) কে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্য আহত ইনামুল বিশ্বাস, মনির বিশ্বাস, মিলন হোসেন, আব্দুল্লাহ, সামছুর, বাবু  ও ওম্বরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ হামলার ঘটনার প্রতিবাদে বাগআঁচড়া বাজারে বিক্ষোভ মিছিল বের করে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
এ ঘটনায় রাতেই আব্দুল খালেকসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে আহত আওয়ামীলীগ নেতা আনোয়ার হোসেনের ছেলে।
নৌকার প্রার্থী বাগআচড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল বলেন, নৌকার পক্ষে নেতাকর্মীরা প্রচারণা চালাতে বামুনিয়া গ্রামে পৌঁছালে আওয়ামীলীগের  বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল খালেক জামাত-বিএনপির সন্ত্রাসী বাহিনীর সহায়তায় আমার নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালায়। এসময় তারা দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহার করে। এতে আমাদের ১২জন নেতাকর্মী আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত করে সন্ত্রাসীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানায় তিনি।
এ বিষয়ে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ বদরুল আলম খান বলেন, নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের উপর হামলার ঘটনায় ২০ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার সকালে প্রেস ক্লাব যশোরে এক সংবাদ সম্মেলন করেন নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী বাগআঁচড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ইলিয়াছ কবির বকুল, ইউনিয়ন সভাপতি আবুল কালাম, যুগ্ম সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন প্রমুখ। সংবাদ সম্মেলনে সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে হামলাকারীদের আটক করে দৃস্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন প্রশাসনের কাছে।
 বার্তাকণ্ঠ /এন

Sharing is caring!