• ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:৩৪
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

শেখ হাসিনার জন্মদিনে কলকাতায় বই প্রকাশ

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২১, ১২:২৩ অপরাহ্ণ
শেখ হাসিনার জন্মদিনে কলকাতায় বই প্রকাশ

সংগৃহীত

কালিপদ দাস, কলকাতা ব্যুরো ।।
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মবার্ষিকী। এ উপলক্ষে ‘শেখ হাসিনা: দ্য স্টোরি অব এ ব্লোসমিং বাংলাদেশের’ শিরোনামের একটি বই কলকাতায় উন্মোচন করা হয়েছে।
এ উপলক্ষে সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে বই উন্মোচন করেন পশ্চিবঙ্গ সরকারের গ্রামন্নোয়ন মন্ত্রী শ্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।
ইংরাজী ভাষার এ বইটিতে কলম ধরেছেন পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবী, শিক্ষাবিদ, গণমাধ্যমকর্মী, অর্থনীতিবিদ এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা।
১৫টি প্রবন্ধের সংগ্রহ দ্বারা বঙ্গবন্ধুর কন্যার জীবন ও কাজ এবং বাংলাদেশ অগ্রগতির বিষয়ে গভীরভাবে তুলে ধরা হয়েছে। পাশাপাশি তার নেতৃত্বে বর্তমান বাংলাদেশের উন্নতি ও সমৃদ্ধির বিষষগুলো তুলে ধরা হয়েছে।
১৫৪ পৃষ্ঠার বইটি সম্পাদনা করেছেন কলকাস্থিত বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের প্রেস শাখার প্রথম সচিব ড. মো. মোফাকখারুল ইকবাল। বইটি প্রকাশনা করেছে ঢাকার ‘জার্নিম্যান বুকস’।
অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশের সমৃদ্ধিতে শেখ হাসিনার অবদান এবং ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক তার কারণেই এত দৃঢ়তা পেয়েছে। তিনি বঙ্গবন্ধুর যোগ্য উত্তরসূরী। চিরকাল তিনি বাঙালি জাতির সেবায় নিবেদিত। তার দীর্ঘ, সুস্থ জীবন কামনা করি।
ভারতের জাতীয় সম্প্রচারকারী দূর-দর্শনের সাংবাদিক স্নেহাসিস সুর তার বাংলাদেশ সফরকে স্মরণ করেছিলেন। যেখানে তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করার সুযোগ পেয়েছিলেন। স্নেহাসিস সুর বলেছেন, শেখ হাসিনা শুধু বাংলাদেশের নেতা নন, গোটা দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের একজন রাষ্ট্রনায়ক। তিনি একজন মহান পিতার সম্ভ্রান্ত কন্যা। যিনি ধর্মনিরপেক্ষতা, বহুত্ববাদ এবং গণতন্ত্রের আদর্শকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা প্রেসক্লাবের সভাপতি স্নেহাসিস সুর, ড. মো মোফাকখারুল ইকবাল, ড. দেবজ্যোতি চন্দ সহ বিশিষ্টজনরা। এ খণ্ডে অবদানকারীদের মধ্যে আছেন ড. চিন্ময় গুহ, ড. পবিত্র সরকার, তরুন গাঙ্গুলী, মানশ ঘোষ, দেবদীপ পুরোহিত, ড. রতন খাসনাবিস, চন্দন সেন, সরদার আমজাদ আলী, অচিন রায়, পার্থ চৌধুরী, ড. দেবজ্যোতি চন্দ, দীপঙ্কর দাশগুপ্ত, প্রবীর প্রামাণিক, প্রতিম রঞ্জন বোস এবং অমল সরকার।

Sharing is caring!