• ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:৪২
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

শ্রদ্ধায়-ভালবাসায় বিদায় নিলেন ক্ষেতলালের ইউএনও আবু সুফিয়ান

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১, ২৩:০১ অপরাহ্ণ
শ্রদ্ধায়-ভালবাসায় বিদায় নিলেন ক্ষেতলালের ইউএনও আবু সুফিয়ান
শাহিনুর ইসলাম শাহিন, ক্ষেতলাল (জয়পুরহাট)।। 
জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার দায়িত্বে থাকা জনবান্ধব ইউএনও এ.এফ.এম আবু সুফিয়ান উপজেলার সকল পর্যায়ের মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় বিদায় নিলেন।
ক্ষেতলাল উপজেলায় সহকারী কমিশনার ( ভূমি) হতে পদোন্নতি পেয়ে প্রথম ৩২-তম ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে গত বছর ২২ জুন যোগদান করেন এ.এফ.এম আবু সুফিয়ান। তিনি মাত্র ১ বছর ২ মাস ২৫ দিন দায়িত্ব পালন করেছেন অত্যন্ত সততা ও নিষ্ঠার সহিত। তিনি এখন উচ্চ শিক্ষা লাভের উদ্দেশ্যে ইংল্যান্ড গমন করবেন, তাই বিদায় নিয়েছেন অফিসিয়ালিভাবে। ক্ষেতলাল উপজেলার সকল মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছিলেন স্বল্প সময়েই। তাই তো দক্ষ, সৎ এবং অত্যন্ত জনবান্ধন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে উপজেলাবাসী তাকে বিদায় জানিয়েছেন শ্রদ্ধা এবং ভালবাসার আনন্দ অশ্রু দিয়েই।
জানা গেছে, গত ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার শেষ কর্মদিবস পালন করেন। উপজেলাবাসীর কাছে প্রিয় হয়ে ওঠা ওই জনবান্ধন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)
শুক্রবার ( ১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪ টায় ক্ষেতলাল উপজেলা পরিষদের আয়োজনে বর্ণাঢ্য বিদায়ী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।  উপজেলা পরিষদ হল রুমে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুন্নাহার গুন্না এর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় বিদায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন , উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম মন্ডল, বিদায়ী ইউএনও এ এফ এম আবু সুফিয়ান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সরদার।
এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী , উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি স্বপন কুমার রায়, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আবু মূসা আশারি কিং, পৌর কাউন্সিলর আজিজার রহমান,, বড়াইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আশরাফ আলী ফকির, জেলা ছাত্রলীগের সংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম রিয়াদ, শিক্ষক প্রতিনিধি সামছুজ্জোহা, ক্ষেতলাল রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ  সম্পাদক ও যুগান্তর প্রতিনিধি হাসান আলী, সাহিত্য সম্পাদক ও ভোরের কাগজ প্রতিনিধি আখতারুজ্জামান তালুকদার, বড়াইল ইউপির মহিলা সদস্য রাজিয়া সুলতানা, সদস্য আব্দুস সামাদ এবং ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষে সমিতির সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান তুহিন প্রমূখ।
অনুষ্ঠানের বক্তব্য প্রদান শেষে ইউএনও আবু সুফিয়ানকে ফুল দিয়ে বিদায়ী শুভেচ্ছা জানান উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম মন্ডল, বনিক সমিতির পক্ষে সভাপতি মোজাম্মেল হক রতন, হুইপ স্বপনের রাজনৈতিক সহকারী এ্যাডভোকেট এস এম মোরশেদের পক্ষে সেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও আবু মূসা আশাকরি কিং এবং বটতলী বন্ধু মাদকাসক্তি।
এছাড়া বিদায় জানিয়েছেন, পৌর মেয়র, সকল ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা অফিসার্স ক্লাব, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, সাংবাদিক সংগঠন, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং কর্মচারীবৃন্দ। তাঁর বিদায় বেলায় সকলেই তাদের শ্রদ্ধা ও ভালবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন বিদায়ী বক্তব্যে। কথা বলতে গিয়ে আবেগে কেঁদে ফেলেন অনেকেই।
করোনাকালীন সময় হওয়ায় করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং শতভাগ মাস্ক ব্যবহারে জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলাকে মডেল হিসেবে গড়ে তুলেছেন। সময়ের সঠিক ব্যবহার করে এবং নিরলস শ্রম দিয়ে উপজেলাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। উপজেলার সকল সেক্টরের সাথে সু-সম্পর্ক এবং ভাল সমন্বয় ছিল তাঁর।
উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম মন্ডল বিদায়ী বক্তব্যে বলেন, বিদায়ী ইউএনও আবু সুফিয়ান খুব ভাল মানুষ। আমি তাঁর সাথে আন্তরিকভাবেই কাজ করতে পেরেছি। তিনি অত্যন্ত জনবান্ধব একজন কর্মকর্তা ছিলেন। আমি তাঁর সার্বিক মঙ্গল ও উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি।
বিদায়ী ইউএনও এ এফ এম আবু সুফিয়ান বলেন, আমি মুক্তিযোদ্ধের চেতনা ধারণ করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ বিনির্মানে এই ১ (এক) বছর ২ মাসের কর্মকালীন সময় চেষ্টা করেছি ক্ষেতলাল উপজেলাকে ভাল কিছু উপহার দিতে। আমি অফিসে আসা উপজেলার সকল মানুষকে একই দৃষ্টিতে দেখার এবং সন্মান করার চেষ্টা করেছি।
তাঁর বিদায়ী অনুভূতি জানতে চাইলে বলেন, আমি উপজেলাবাসীর ভালবাসায় অভিভূত। আসলে আমাকে যতটা প্রশংসা করছেন তা জেনে ভাল লাগছে তবে আমি সত্যিই এতটা ভাল কিনা তা মেলানোর চেষ্টা করি। মনে হয় আমি এতটা ভাল মানুষ না। ভাল প্রশংসা করতে গেলেও ভাল মনের অধিকারী হতে হয়। এই উপজেলার মানুষের মন ভাল বলেই ভাল প্রশংসা করছেন। আমি আপনাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং সকলের নিকট দোঁয়া প্রার্থনা করছি।

Sharing is caring!