• ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:০৯
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

সন্তানের বাবার পরিচয় দেওয়ায় নুসরাতের উপর চটলেন তসলিমা

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১, ১৮:২৫ অপরাহ্ণ
সন্তানের বাবার পরিচয় দেওয়ায় নুসরাতের উপর চটলেন তসলিমা

বিনোদন ডেস্ক ।।

এবার নুসরাত জাহানের উপর চটলেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তিনি তাকে নিয়ে প্রশংসনীয় পোস্ট এর আগে করলেও এবার ক্ষেপলেন। নুসরাতের সন্তানের বাবার পরিচয় প্রকাশ্যে আসার পরই তসলিমা বেজায় নাখোশ হলেন।

নুসরাতের ছেলের নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম নথিভুক্ত হয়েছে কলকাতা পুরসভার সাইটে। সেখানেই পাওয়া গিয়েছে ঈশানের জন্ম শংসাপত্র। এত দিন ধরে তার সন্তানের বাবার পরিচয় নিয়ে যে ধোঁয়াশা তৈরি করেছিলেন নুসরাত, তা কেটে গেল এক নিমেষে। নিজের মুখে স্বীকার না করলেও পুরসভার সাইটের মাধ্যমে সবই প্রকাশ্যে আনলেন নুসরাত। বাবার নামের পাশে লেখা দেবাশিস দাশগুপ্ত ওরফে যশ।

অনেকেই ভেবেছিলেন, নুসরাত নিজেকে ‘সিঙ্গল মাদার’ হিসেবে প্রতি‌ষ্ঠা করবেন। জানা গিয়েছিল, পুরসভায় গিয়ে সেই বিষয়ে খোঁজ খবরও নিয়ে এসেছিলেন তিনি। নুসরাতের সন্তান জন্মের পর থেকে তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন কলকাতার একাধিক ‘সিঙ্গল মাদার’। কঠিন পথে একা লড়াই করছেন বলে বহু মানুষ আগে থেকেই সমর্থন জানিয়েছিলেন তাকে।

তাদের মধ্যে অন্যতম নাম তসলিমা। আজ নুসরতকে এই রূপে দেখবেন, এ কথা ভাবেননি তসলিমা। তাই তাকে পুরুষতন্ত্রের ছক ভাঙা মহিলাদের দলে ফেলতে চাইলেন না। তসলিমা লিখলেন, ‘প্রচুর লেখালেখি, প্রচুর স্বাগত জানানো, শুভেচ্ছা জানানো, স্যালুট জানানো— এসব বরং এক্সট্রাঅরডিনারি সাহসী এবং পুরুষতন্ত্রের ছক ভাঙ্গা মেয়েদের জন্য তোলা থাকুক। ট্র্যাডিশনাল মেয়েদের পেছনে সময় নষ্ট করা, তাদের বাহবা দেওয়া আপাতত স্থগিত থাকুক।’

নুসরতাকে নিয়ে ঠিক দেড় মাস আগে সম্পূর্ণ ভিন্ন মতের পোস্ট করেছিলেন তসলিমা। লেখিকার মতে, শুধু মাত্র শুক্রাণুর জন্যই সন্তান ধারণের সময় পুরুষের উপর নির্ভরশীল নারী। এই জায়গা থেকে তিনি আগের সেই পোস্টে লি‌খেছিলেন, ‘এমনও দিন আসবে যে দিন মেয়েদের স্টেম সেল থেকে স্পার্ম তৈরি হবে। অথবা স্পার্ম তৈরি হবে মেয়েদের বোন ম্যারো থেকে।’ আরও লিখেছিলেন, ‘নুসরাত প্রতিষ্ঠিত মেয়ে। কারওর দাসিবাঁদি নয়। নিজের ইচ্ছের মূল্য দিতে জানে। সে তার সন্তানকে ভাল মানুষ করবে, এ আমার বিশ্বাস।’

তার পর বুধবার রাতের ঘটনা। তসলিমার চোখে বিশেষ জায়গায় আসীন থাকা নুসরাত যেন সাধারণের দলে চলে গেলেন। তসলিমা লিখলেন, ‘কলকাতার অভিনেত্রী নুসরাতকে সে যতটা না বিল্পবী তার চেয়ে বেশি ভেবে নিয়েছিলাম। ভেবেছিলাম নুসরাত তার সন্তানকে শুধু নিজের সন্তান হিসেবে পরিচয় দেবে। কার স্পার্ম সে নিয়েছে গর্ভবতী হওয়ার জন্য, সেটা মোটেও উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হবে না। কিন্তু না, নুসরাত আসলে অন্য যে কোনও রমণীর মতোই রমণী।’

তসলিমার দাবি, সন্তানের বাবার নাম যদি নিতেই হত, তা হলে এত দিনের লুকোচুরির কোনও মানে নেই। তসলিমা জানালেন, তিনি যদি জানতে পারেন যে নুসরাত গোপনে যশকে বিয়ে করেছেন, তা হলেও অবাক হবেন না তিনি। তাই তার প্রশ্ন, ‘যে কোনও ট্রাডিশানাল মেয়ের চেয়ে নুসরাতের তফাৎটা কোথায়?

Sharing is caring!