• ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:০৭
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

সাধুরপাড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহমুদুল আলম বাবুর উঠান বৈঠক

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত অক্টোবর ৩০, ২০২১, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ণ
সাধুরপাড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহমুদুল আলম বাবুর উঠান বৈঠক
ক্যাপশন-বকশীগঞ্জ সাধুরপাড়া  উঠান বৈঠকে চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহমুদুল আলম বাবু
আল মোজাহিদ বাবু, বকশীগঞ্জ (জামালপুর)।।
জামালপুরের বকশীগঞ্জে  সাধুরপাড়া  ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বর্তমান চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু’র  উদ্যোগে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার  বিকালে  সাধুরপাড়া  ইউনিয়নের কামালেরবার্ত্তী    বীরমুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাইদুর রহমানের  সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে বক্তব্য রাখেন, চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বর্তমান চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু ।
এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এইচ এম কবির, আলহাজ্ব নান্নু মাষ্টার , আলহাজ্ব ছামিউল মাষ্টার , আব্দুল মালেক (বিএসসি)সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
 উঠান বৈঠকে মাহমুদুল আলম বাবু  বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও মুক্তিযোদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে রাজনীতিতে প্রবেশ করেছি। নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতের জন্য আমি গত ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচীত  হয়ে সত ও নিষ্ঠার সহিত চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসতেছি  । তাই এবারও আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নমূলক কাজের ধারা অব্যাহত রাখতে আমি আবার দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে এলাকায় উন্নয়নমূলক বাকি কাজটুকু শেষ করার জন্য   আবারও দল ও জনসাধারনের কাছে প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি আরো বলেন ইতি পূর্বে যত দল সরকার গঠন করেছেন, তাদের চেয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ তথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ ও জাতীর জন্য বেপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন এমনকি বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশ হিসাবে পরিচিত লাভ করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার গঠন করেছেন বলেই আমরা স্বাধীন ভাবে বসবাস করতে পারতেছি।   তারই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে  সে লক্ষ্যেই দল ও এলাকার জন্য দিনরাত  নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।
উঠান বৈঠক শেষে মাহমুদুল আলম বাবু এলাকার ছোট-বড় সকলের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং তাদের কাছে দোয়া এবং আবারও সমর্থন কামনা করেন।
বার্তাকণ্ঠ /এন

Sharing is caring!