• ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:১২
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

হবিগঞ্জের মাধবপুরে থানার ভেতরে নারীর বিষপান! 

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ৭, ২০২১, ২২:৫১ অপরাহ্ণ
হবিগঞ্জের মাধবপুরে থানার ভেতরে নারীর বিষপান! 
মীর দুলাল, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি।। 
হবিগঞ্জের মাধবপুর থানায় এক নারী বিষপান করে অসুস্থ হয়ে পড়ে। ছুটিতে থাকা পুলিশ কনস্টেবল বাবুল মিয়ার সঙ্গে দেখা করতে এসে তাকে না পেয়ে আনোয়ারা বেগম (৩২) নামে এক নারী বিষপান করেছেন।
মঙ্গলবার ( ৭ সেপ্টেম্বর)  ২১ ইং দুপুরে মাধবপুর থানা  ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। আনোয়ারা বেগম কক্সবাজার জেলার রামু উপজেলার দক্ষিণ রাজারকুল গ্রামের দিদাদুল ইসলামের স্ত্রী।
মুমূর্ষুবস্থায় আনোয়ারা বেগমকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
মাধবপুর থানার ডিউটি অফিসার ওয়াহিদ গাজী জানান, দুপুরে আনোয়ারা বেগম মাধবপুর থানায় কর্মরত কনস্টেবল (কং/৩৪৭) বাবুল মিয়ার সন্ধানে থানায় আসেন। কিন্তু কনস্টেবল বাবুল মিয়া তার দেশের বাড়ি কুমিল্লা থাকায় তার সঙ্গে দেখা হয়নি।
এ সময় পুলিশ কোন অভিযোগ থাকলে থানায় অভিযোগ দেওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু কোন কিছু না বলে ওই সময় থানা কক্ষ থেকে বের হয়ে তার ব্যাগে থাকা বিষের বোতল বের করে থানা প্রাঙ্গণের সামনে বিষপান করে ছটফট করতে থাকে।
পুলিশ তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।
সেখান থেকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
আনোয়ারা বেগমের স্বামী দিদারুল ইসলাম জানান, বাবুল মিয়া কক্সবাজার আদালতে কর্তব্যরত থাকাবস্থায় আনোয়ারা বেগমের সঙ্গে পরিচয় হয়। এই সূত্রে আনোয়ারা বেগমের কাছ থেকে বিভিন্ন কৌশলে ৫ লক্ষ টাকা নেয়।
সম্প্রতি তার স্বামী টাকার বিষয়টি জানতে পেরে স্বামী- স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। পরে ওই টাকা আদায়ের উদ্দেশ্যে সোমবার দুপুরে আনোয়ারা বেগম বাড়ি থেকে বের হন।
মাধবপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক মাঈন উদ্দিন বলেন, আনোয়ারা বেগম দুপুরে মাধবপুর থানায় এলে পুলিশ তাকে অভিযোগ দিতে বলে। কিন্তু তিনি অভিযোগ না দিয়ে হঠাৎ করে সবার অগোচরে থানা এলাকায় এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।
আমরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছি।

Sharing is caring!