• ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:২২
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে নৌকা ভ্রমণে গণধর্ষণের শিকার নববধূ! 

বার্তাকন্ঠ
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২, ২০২১, ১৩:২৩ অপরাহ্ণ
হবিগঞ্জের লাখাইয়ে নৌকা ভ্রমণে গণধর্ষণের শিকার নববধূ! 
মীর দুলাল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ।। 
হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার টিক্কাপুর হাওরে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক নববধূ।
এ সময় লম্পটরা স্বামী ও তার বন্ধুকে বেধে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দেয়। এমনকি ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে তাদেরকে চুপ থাকতে বলে।
 পরবর্তীতে ভিডিও প্রকাশের হুমকি দিয়ে পুনরায় ওই নারীকে তাদের কাছে যাবার জন্য বলে।
এতে রাজি না হলে লম্পটরা ধর্ষণের ভিডিওটি গ্রামবাসীর মাঝে ছড়িয়ে দেয়। লম্পটদের হামলায় গুরুতর আহত ওই নারীর স্বামী রকিব আহমেদ (২৫) কে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে এবং তার বন্ধু রাকিব মিয়াকে (২৪) কে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
 এরকম একটি ঘটনায় সর্বত্র তোলপাড় চলছে। গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই নারীকে অসুস্থ অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
বিগত মাসে  উপজেলার মোড়াকড়ি গ্রামের রকিব আহমেদের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পরই রকিব কাজের জন্য ঢাকা চলে যায়। কিছুদিন আগে সে বাড়িতে আসে। গত ২৫ আগষ্ট দুপুরে তারা দুজন স্বামী-স্ত্রী ও স্বামীর বন্ধু একই গ্রামের রাকিব মিয়াকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী টিক্কাপুর হাওরে নৌকা ভ্রমণে যান। কিছুক্ষণ পর একই গ্রামের ৭/৮ জন যুবক তাদের নৌকার গতিরোধ করে।
এক পর্যায়ে তাদের নৌকা থেকে তার স্বামী ও স্বামীর বন্ধুকে ধরে নিয়ে বেধে মারধোর করে তাদের হাত পা ভেঙে ফেলে এবং অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই নারীকে তারা পালাক্রমে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে রাখে।
পরে তাদেরকে হুমকি দিয়ে লম্পটরা চলে যায়। এদিকে লোকলজ্জা আর তাদের হুমকি এবং ওই যুবকরা প্রভাবশালী হওয়ায় ওই নারী কাউকে বিষয়টি জানাননি।
তবুও গত কয়েকদিন ধরে লম্পটরা ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে তাকে আবারও ধর্ষণ করতে চাপ দিলে সে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে।
বেশ কয়েকবার আত্মহত্যারও চেষ্টা করে। অবশেষে গত মঙ্গলবার লম্পটরা ভিডিওটি ছড়িয়ে দিলে বিষয়টি জানাজানি হয়। খবর পেয়ে র‌্যাব-৯ এর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং সদর হাসপাতালে ওই নারীর জবানবন্দি নেন।
লাখাই থানার ওসি মোঃ সাইদুর রহমান জানান, বিষয়টি শুনেছি। অভিযোগ পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে ওই নারী হাসপাতালে এ প্রতিনিধিকে বলেন, লম্পটরা প্রভাবশালী এবং কতিপয় রাজনৈতিক দলের নেতার আত্মীয়। তিনি আদালতে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

Sharing is caring!