• ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:৩২
  • রেজিস্ট্রেশন ৪৬১

১ লাখ টাকা চেয়ে ক্রিকেটাররা পাচ্ছেন ৬০ হাজার

bmahedi
প্রকাশিত অক্টোবর ২৮, ২০১৯, ১৮:৫০ অপরাহ্ণ
মো: ইমরান হোসেন :=

ক্রিকেটারদের আন্দোলনের মুখে বাড়ানো হয়েছে চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগের ম্যাচ ফি সহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা। সোমবার আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড জানায়, জাতীয় লিগে প্রথম স্তরে ৭১ শতাংশ ও দ্বিতীয় স্তরে শতভাগ ম্যাচ ফি বাড়ানো হয়েছে। একই সঙ্গে দৈনিক ভাতা, যাতায়াত, আবাসনসহ বাড়ানো হয়েছে অন্যান্য সুবিধাও।

দাবি আদায়ের আশ্বাস পেয়ে আন্দোলন স্থগিত করেছিলেন ক্রিকেটাররা। প্রথমে যে ১১ দফা দাবি উপস্থাপন করেছিলেন সাকিব আল হাসানরা, সেখানে বেশির ভাগ অংশ জুড়ে ছিল ঘরোয়া ক্রিকেট। বিশেষ করে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্যাচ ফি সহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ন্যূনতম এক লাখ টাকা ম্যাচ ফি চেয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। বিসিবির সঙ্গে সমঝোতার পর সাকিব আল হাসান কে প্রশ্ন করা হয়েছিল, এ ক্ষেত্রে কত টাকা পাওয়ার আশ্বাস পেয়েছেন তারা? সাকিব বিষয়টি এড়িয়ে গিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘ভাই, প্রশ্ন করলে উত্তর দিতে গেলে ঝামেলা শুরু। আমি প্রশ্নের উত্তর দিতে চাই না।’ তাই এই বিষয়টি নিয়ে সবার কৌতূহল ছিল অনেক বেশি। তা ছাড়া এই ক্ষেত্রে দেশের সকল ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটারদের স্বার্থ জড়িয়ে ছিল।

সোমবার বিকেলে পাঠানো বিসিবির বিবৃতি অনুযায়ী, চলমান জাতীয় লিগের প্রথম স্তরের ম্যাচে ক্রিকেটাররা ম্যাচ ফি হিসেবে পাবেন ৬০ হাজার টাকা। পূর্বে যা ছিল ৩৫ হাজার টাকা। আর দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে ম্যাচ ফি ২৫ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৫০ হাজার করা হয়েছে।

এ ছাড়া উভয় স্তরের খেলোয়াড়দের যাতায়াত ভাতা ২৫০০ থেকে ৩৫০০ টাকা করা হয়েছে। বেড়েছে দৈনিক ভাতাও। উভয় স্তরের ক্রিকেটাররা ১৫০০ টাকার জায়গায় পাবেন ২৫০০ টাকা। হোটেল থেকে ভেন্যুতে যাওয়ার জন্য ক্রিকেটারদের এসি বাসের নিশ্চয়তা ও ভালো মানের হোটেলের নিশ্চয়তাও দিয়েছে বিসিবি। এই মুহূর্তে জাতীয় লিগের তৃতীয় রাউন্ডের খেলা চলছে। তবে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়ে প্রথম রাউন্ড থেকেই।

জাতীয় লিগে খেলে থাকে মোট ৮টি দল। সাতটি বিভাগীয় দলের সঙ্গে ঢাকা মেট্রো নামের একটি দল রয়েছে। এটিই দেশের সবচেয়ে পুরোনো প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট আসর। এবার যার ২১তম আসর চলছে। জাতীয় লিগের বাইরে আরেকটি ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট আসর রয়েছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ নামের সেই আসরটি হয়ে থাকে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক।

Sharing is caring!