Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১শনিবার , ৬ জুলাই ২০১৯
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

পাবনার আদালতের রায় ন্যক্কারজনক বললেন — ফখরুল

বার্তাকন্ঠ
জুলাই ৬, ২০১৯ ৬:৪১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নজরুল ইসলাম।। 

পাবনার একটি আদালতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর হামলার মামলায় বিএনপি ৯ নেতাকে ফাঁসির দণ্ড দেওয়ার রায়কে ‘ন্যক্কারজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, পাবনায় কয়েক দিন আগে ১৯৯৪ সালে একটি ট্রেনে হামলার বিষয় নিয়ে যে রায় হয়েছে- এটা আমার মনে হয় না যে, কোনো সভ্য সমাজে, আইনের শাসনের দেশে এই ধরনের একটা ন্যক্কারজনক রায় হতে পারে।

আজ শনিবার সকালে ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলের মুক্তির দাবিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সারা দেশ একটা কারাগারে পরিণত হয়েছে। এখানে একটি বিচার বিভাগ আছে, এ বিচার বিভাগের কাছে আমরা কোনো বিচার পাই না। এই বিচার বিভাগ সম্পূর্ণভাবে আওয়ামী লীগের অবৈধ সরকারের করায়ত্ত। সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নেই বললেই চলে। একেবারে শূন্যের কোঠায় এসে গেছে। উন্নয়নের কথা বলা হচ্ছে। মেগা প্রজেক্ট, মেগা দুর্নীতি। পত্র-পত্রিকা খুলে দেখবেন, ব্যাংকগুলো থেকে কীভাবে টাকা চলে যাচ্ছে।

বিএনপি নেতা বলেন, সরকার গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করেছে। গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করার একমাত্র কারণ হচ্ছে তারা এলএনজি আমদানি করতে চায়। এই এলএনজি আমদানি করে সেখানে যে ভর্তুকি দেবে, সেই টাকা জনগণের পকেট থেকে নিতে চায়। এ নিয়ে বাম দলগুলোর রোববারের হরতালে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, এটা জনগণের দাবি, জনগণের দাবিকে অবশ্যই বিএনপি সব সময় সমর্থন করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে কারারুদ্ধ করে রেখেছেন।

মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, মহানগর দক্ষিণের সহসভাপতি শামসুল হুদা, নবী উল্লাহ, মোশাররফ হোসেন খোকন, মীর হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রশীদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।