রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

খালেদার মুক্তির জন্য, মান্না-অলির নতুন মিশন

কামাল হোসেন ।।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বাইরে নতুন একটি রাজনৈতিক ফ্রন্ট খুলতে তৎপরতা শুরু করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এবং লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি এলডিপির সভাপতি কর্ণেল (অব.) অলি আহমেদ।

বিএনপির সাথে যুগপৎ আন্দোলন করতেই এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে বিশ্বস্থ সূত্র নিশ্চিত করেছে।

তবে এ প্লাটফর্মে বেশ কয়েকটি বামধারার রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহন থাকবে। সূত্র জানায়, সরকারের নানামুখী দুর্নীতির প্রতিবাদ জানাতে নাগরিক ঐক্য এবং এলডিপি একটি নতুন প্লাটফর্ম খোলার ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কাছে বার্তা পাঠান।

সে বার্তায় বলা হয়, রাজনৈতিক অঙ্গনে ড. কামাল হোসেনের ইমেজ সংকট রয়েছে। তাঁকে নিয়ে বেশি দুর এগুনো সম্ভব নয়। তাছাড়া বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী এবং আ স ম আব্দুর রব রাজপথের আন্দোলনে খুব বেশি আগ্রহী নন।

এমন বাস্তবতায় রাজপথের আন্দোলন বেগবান করতে নতুন ঐক্য প্রক্রিয়া জরুরী। দুত মারফত বেগম খালেদা জিয়া কর্ণেল (অব.) অলি আহমেদ এবং মাহমুদুর রহমান মান্নাকে এব্যাপারে অগ্রসর হবার ইঙ্গিত দেন।

সে ইঙ্গিত অনুযায়ী এলডিপির অলি আহমেদ কথা বলেন ইসলামী আর্দশে বিশ্বাসী কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সাথে এবং মাহমুদুর রহমান মান্না কথা বলেন বামধারার কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে। ভেতরে-ভেতরে তারা দু নেতা নতুন প্লাটফর্ম এর প্রাথমিক কাজকর্ম গুছিয়ে এনেছেন।

আপাতত এ প্লাটফর্মের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হচ্ছেনা। কৌশল হিসেবে সরকার বিরোধী আন্দোলনে বামধারার রাজনৈতিক দলগুলোর কর্মসূচির সাথে সংহতি প্রকাশ করা হবে।

পরবর্তীতে সরকারের অবস্থান বুঝে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করবে নতুন এ প্লাটফর্ম। এব্যাপারে বাম রাজনৈতিক দলের এক নেতা জানান, যে কোন বিষয়ে রাজনৈতিক ঐক্য হতে পারে।

তার মতে, আমাদের কর্মসূচিতে কোন রাজনৈতিক দল সমর্থন দিলে সেটা আমরা নিষেধ করতে পারিনা। তবে আর্দশিক বিষয়গুলো মাথায় রেখেই বামধারার রাজনৈতিক দলগুলো পথ চলে বলে তিনি জানান

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

খালেদার মুক্তির জন্য, মান্না-অলির নতুন মিশন

প্রকাশের সময় : ০৬:১১:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০১৯

কামাল হোসেন ।।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বাইরে নতুন একটি রাজনৈতিক ফ্রন্ট খুলতে তৎপরতা শুরু করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এবং লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি এলডিপির সভাপতি কর্ণেল (অব.) অলি আহমেদ।

বিএনপির সাথে যুগপৎ আন্দোলন করতেই এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে বিশ্বস্থ সূত্র নিশ্চিত করেছে।

তবে এ প্লাটফর্মে বেশ কয়েকটি বামধারার রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহন থাকবে। সূত্র জানায়, সরকারের নানামুখী দুর্নীতির প্রতিবাদ জানাতে নাগরিক ঐক্য এবং এলডিপি একটি নতুন প্লাটফর্ম খোলার ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কাছে বার্তা পাঠান।

সে বার্তায় বলা হয়, রাজনৈতিক অঙ্গনে ড. কামাল হোসেনের ইমেজ সংকট রয়েছে। তাঁকে নিয়ে বেশি দুর এগুনো সম্ভব নয়। তাছাড়া বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী এবং আ স ম আব্দুর রব রাজপথের আন্দোলনে খুব বেশি আগ্রহী নন।

এমন বাস্তবতায় রাজপথের আন্দোলন বেগবান করতে নতুন ঐক্য প্রক্রিয়া জরুরী। দুত মারফত বেগম খালেদা জিয়া কর্ণেল (অব.) অলি আহমেদ এবং মাহমুদুর রহমান মান্নাকে এব্যাপারে অগ্রসর হবার ইঙ্গিত দেন।

সে ইঙ্গিত অনুযায়ী এলডিপির অলি আহমেদ কথা বলেন ইসলামী আর্দশে বিশ্বাসী কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সাথে এবং মাহমুদুর রহমান মান্না কথা বলেন বামধারার কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে। ভেতরে-ভেতরে তারা দু নেতা নতুন প্লাটফর্ম এর প্রাথমিক কাজকর্ম গুছিয়ে এনেছেন।

আপাতত এ প্লাটফর্মের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হচ্ছেনা। কৌশল হিসেবে সরকার বিরোধী আন্দোলনে বামধারার রাজনৈতিক দলগুলোর কর্মসূচির সাথে সংহতি প্রকাশ করা হবে।

পরবর্তীতে সরকারের অবস্থান বুঝে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করবে নতুন এ প্লাটফর্ম। এব্যাপারে বাম রাজনৈতিক দলের এক নেতা জানান, যে কোন বিষয়ে রাজনৈতিক ঐক্য হতে পারে।

তার মতে, আমাদের কর্মসূচিতে কোন রাজনৈতিক দল সমর্থন দিলে সেটা আমরা নিষেধ করতে পারিনা। তবে আর্দশিক বিষয়গুলো মাথায় রেখেই বামধারার রাজনৈতিক দলগুলো পথ চলে বলে তিনি জানান