রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গ্রামের ও শহরের মধ্যে বৈষম্য কমাতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

রোকনুজ্জামান রিপন ।। 

দেশ ও দেশের মানুষের ভালো থাকার জন্য আরো বেশি মনোযোগ দিয়ে সচিবদের কাজ করার আহবান জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ২০১৯ ও ২০২০ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু ১০টি মন্ত্রণালয় নয়। আগামীতে প্রত্যেক মন্ত্রণালয়ের পুরস্কারের আওতায় আনা হবে, তাই পুরস্কার পাওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করবেন।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রসাশনের কর্মকর্তাদের আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করার ফলেই দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। কর্মকর্তাদের কাজের ফলেই আমাদের প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পেয়েছে, মাথা পিছু আয় বেড়েছে। আজ আমরা ৫ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকার বাজেট দিতে পেরেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্লান ছাড়া দেশকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়। আমরা গ্রামের ও শহরের মধ্যে সুযোগ সুবিধার বৈষম্য কমাতে চাই। এ জন্য আমরা নির্বাচনী ইশতেহারে আমার গ্রাম আমার শহর কর্মসূচি ঘোষণা করেছি।

আগামী ২১ এবং ৪১ সালকে সামনে রেখে আমরা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। এ পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন হলে ৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে দক্ষিণ এশিয়ার উন্নত একটি দেশ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন- মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান ও বিদ্যুৎ সচিব আহমদ কায়কাউস।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

গ্রামের ও শহরের মধ্যে বৈষম্য কমাতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৩:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০১৯

রোকনুজ্জামান রিপন ।। 

দেশ ও দেশের মানুষের ভালো থাকার জন্য আরো বেশি মনোযোগ দিয়ে সচিবদের কাজ করার আহবান জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ২০১৯ ও ২০২০ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু ১০টি মন্ত্রণালয় নয়। আগামীতে প্রত্যেক মন্ত্রণালয়ের পুরস্কারের আওতায় আনা হবে, তাই পুরস্কার পাওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করবেন।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রসাশনের কর্মকর্তাদের আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করার ফলেই দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। কর্মকর্তাদের কাজের ফলেই আমাদের প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পেয়েছে, মাথা পিছু আয় বেড়েছে। আজ আমরা ৫ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকার বাজেট দিতে পেরেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্লান ছাড়া দেশকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়। আমরা গ্রামের ও শহরের মধ্যে সুযোগ সুবিধার বৈষম্য কমাতে চাই। এ জন্য আমরা নির্বাচনী ইশতেহারে আমার গ্রাম আমার শহর কর্মসূচি ঘোষণা করেছি।

আগামী ২১ এবং ৪১ সালকে সামনে রেখে আমরা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। এ পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন হলে ৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে দক্ষিণ এশিয়ার উন্নত একটি দেশ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন- মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান ও বিদ্যুৎ সচিব আহমদ কায়কাউস।