বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছেলে ধরা গুজবে ঘর থেকে বের হচ্ছে না শিশুরা

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃঃ-
সারা দেশের ন্যায় ছেলেধরা গুজবে আতংকিত মৌলভীবাজারের  সকল স্কুল ও কলেজের  ছাত্র  অভিভাবকরা। বিদ্যালয়গুলোতে উপস্থিতি কমে গেছে শিক্ষার্থীদের। আতংকিত অভিভাবকরা নিজের সন্তানকে নিয়ে হাজির হচ্ছেন স্ব স্ব বিদ্যালয়ে।
কয়েকদিন যাবৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু কিছু চক্র একটি গুজব ছড়িয়ে দিয়েছে যে, পদ্মা সেতুতে অসংখ্য মাথা লাগবে। আর এই গুজবে ছেলে ধরা আতংক বিরাজ করছে। গুজব হলেও দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেলে ধরার খবর বিভিন্ন মাধ্যমে দেখে লোকজন বেশ চিন্তিত। মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্যকে মুখে মুখে প্রচার করে তা সত্যতে রুপান্তর করা হয়েছে। ছেলে ধরা চক্র নাকি এলাকায় ছদ্মবেশে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং শিশুদের ধরে মাথা কেটে নিয়ে যাচ্ছে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে গোটা জেলায়। ফলে আতংকিত হয়ে পড়েছেন শিশু সহ অভিভাবকরা। এই আতংকে বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছে শিশুরা। অপরিচিত লোক দেখলেই আতংকিত হন সবাই এমনকি কেউ কেউ উত্তেজিতও হয়ে পড়েন। বিশেষ করে মহিলাদের মধ্যে এমন গুজব ছড়িয়ে দিয়ে তাদেরকে চিন্তায় ফেলে দেওয়া হয়েছে।  আতংকিত অভিভাবকরা নিজের সন্তানকে নিয়ে হাজির হচ্ছেন স্ব স্ব বিদ্যালয়ে।  অনেেকে   ভয় পাচ্ছেন  সন্তানকে স্কুলে পাঠাতে।    এমন গুজবে নানান উৎকন্ঠায় দিন পার করছেন জেলাসহ আশপাশের গ্রামের জনসাধারণ।
মৌলভীবাজার মডেল   থানার ওসি  আলমগীর হোসেন বলেন, ছেলেধরা বা গলাকাটা সন্দেহে আপনারা আইন নিজেদের হাতে তুলে না নিয়ে আইনের হাতে তুলে দিন। প্রয়োজনে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সহায়তা নিন। তিনি বলেন, সারাদেশে ছেলেধরা গুজব ছড়াচ্ছে। যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। কোথাও কোনো অস্বাভাবিক কাউকে দেখলে পুলিশকে অবহিত করতে অনুরোধ জানান ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ছেলে ধরা গুজবে ঘর থেকে বের হচ্ছে না শিশুরা

প্রকাশের সময় : ১২:১২:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০১৯
মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃঃ-
সারা দেশের ন্যায় ছেলেধরা গুজবে আতংকিত মৌলভীবাজারের  সকল স্কুল ও কলেজের  ছাত্র  অভিভাবকরা। বিদ্যালয়গুলোতে উপস্থিতি কমে গেছে শিক্ষার্থীদের। আতংকিত অভিভাবকরা নিজের সন্তানকে নিয়ে হাজির হচ্ছেন স্ব স্ব বিদ্যালয়ে।
কয়েকদিন যাবৎ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু কিছু চক্র একটি গুজব ছড়িয়ে দিয়েছে যে, পদ্মা সেতুতে অসংখ্য মাথা লাগবে। আর এই গুজবে ছেলে ধরা আতংক বিরাজ করছে। গুজব হলেও দেশের বিভিন্ন স্থানে ছেলে ধরার খবর বিভিন্ন মাধ্যমে দেখে লোকজন বেশ চিন্তিত। মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্যকে মুখে মুখে প্রচার করে তা সত্যতে রুপান্তর করা হয়েছে। ছেলে ধরা চক্র নাকি এলাকায় ছদ্মবেশে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং শিশুদের ধরে মাথা কেটে নিয়ে যাচ্ছে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে গোটা জেলায়। ফলে আতংকিত হয়ে পড়েছেন শিশু সহ অভিভাবকরা। এই আতংকে বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছে শিশুরা। অপরিচিত লোক দেখলেই আতংকিত হন সবাই এমনকি কেউ কেউ উত্তেজিতও হয়ে পড়েন। বিশেষ করে মহিলাদের মধ্যে এমন গুজব ছড়িয়ে দিয়ে তাদেরকে চিন্তায় ফেলে দেওয়া হয়েছে।  আতংকিত অভিভাবকরা নিজের সন্তানকে নিয়ে হাজির হচ্ছেন স্ব স্ব বিদ্যালয়ে।  অনেেকে   ভয় পাচ্ছেন  সন্তানকে স্কুলে পাঠাতে।    এমন গুজবে নানান উৎকন্ঠায় দিন পার করছেন জেলাসহ আশপাশের গ্রামের জনসাধারণ।
মৌলভীবাজার মডেল   থানার ওসি  আলমগীর হোসেন বলেন, ছেলেধরা বা গলাকাটা সন্দেহে আপনারা আইন নিজেদের হাতে তুলে না নিয়ে আইনের হাতে তুলে দিন। প্রয়োজনে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সহায়তা নিন। তিনি বলেন, সারাদেশে ছেলেধরা গুজব ছড়াচ্ছে। যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। কোথাও কোনো অস্বাভাবিক কাউকে দেখলে পুলিশকে অবহিত করতে অনুরোধ জানান ।