শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৌদির কাছে ৬৮৫৫ কোটি টাকার অস্ত্র বিক্রি ব্রিটেনের

Overlooking the capital of Saudi Arabia, Riyadh, at sunset

রোকনুজ্জামান রিপন ।। 

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ৬ মাসের মধ্যে সৌদি আরবের কাছে রেকর্ড ৬ হাজার ৮৫৫ কোটি টাকার অস্ত্র বিক্রি করেছে ব্রিটেন। ব্রিটিশ সরকারের প্রকাশিত নতুন অস্ত্র রপ্তানি পরিসংখ্যানে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান। অস্ত্র আমদানিতে সৌদি আরব বর্তমানে প্রথম স্থানে রয়েছে।

ব্রিটেন একদিকে সৌদি আরবের কাছে বিশাল অঙ্কের অস্ত্র বিক্রি করছে। অন্যদিকে জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের নিন্দাও জানিয়েছে।  জাতিসংঘ এবং যুক্তরাষ্ট্রের তদন্ত কর্মকর্তারা ওই হত্যাকাণ্ডে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে দায়ী করেন। ব্রিটেনের কাছ থেকে কেনা সৌদি আরবের ওই অস্ত্রের মধ্যে গ্রেনেড, বোমা, ক্ষেপণাস্ত্র ও হামলা প্রতিরোধক অস্ত্র রয়েছে। এর অধিকাংশ ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের যুদ্ধে ব্যবহৃত হচ্ছে।

সৌদি আরবের কাছে যুক্তরাজ্যের এই অস্ত্র বিক্রি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ইয়েমেনে সৌদি আরব যখন যুদ্ধে নেতৃত্ব দিচ্ছে তখন তাদের কাছে বিশাল অঙ্কের এই অস্ত্র বিক্রির ঘটনায় সমালোচনার মুখেও পড়েছে ব্রিটেন। দেশটির তৈরি অস্ত্রে ইয়েমেনে সৌদি আরব মানবতাবিরোধী অপরাধ করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এই হত্যাকাণ্ডের পর প্রথমবারের মতো স্বাধীন এক তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডবিষয়ক বিশেষ দূত অ্যাগনেস ক্যালামার্ড।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

সৌদির কাছে ৬৮৫৫ কোটি টাকার অস্ত্র বিক্রি ব্রিটেনের

প্রকাশের সময় : ০৭:২০:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০১৯
রোকনুজ্জামান রিপন ।। 

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ৬ মাসের মধ্যে সৌদি আরবের কাছে রেকর্ড ৬ হাজার ৮৫৫ কোটি টাকার অস্ত্র বিক্রি করেছে ব্রিটেন। ব্রিটিশ সরকারের প্রকাশিত নতুন অস্ত্র রপ্তানি পরিসংখ্যানে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান। অস্ত্র আমদানিতে সৌদি আরব বর্তমানে প্রথম স্থানে রয়েছে।

ব্রিটেন একদিকে সৌদি আরবের কাছে বিশাল অঙ্কের অস্ত্র বিক্রি করছে। অন্যদিকে জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের নিন্দাও জানিয়েছে।  জাতিসংঘ এবং যুক্তরাষ্ট্রের তদন্ত কর্মকর্তারা ওই হত্যাকাণ্ডে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে দায়ী করেন। ব্রিটেনের কাছ থেকে কেনা সৌদি আরবের ওই অস্ত্রের মধ্যে গ্রেনেড, বোমা, ক্ষেপণাস্ত্র ও হামলা প্রতিরোধক অস্ত্র রয়েছে। এর অধিকাংশ ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের যুদ্ধে ব্যবহৃত হচ্ছে।

সৌদি আরবের কাছে যুক্তরাজ্যের এই অস্ত্র বিক্রি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ইয়েমেনে সৌদি আরব যখন যুদ্ধে নেতৃত্ব দিচ্ছে তখন তাদের কাছে বিশাল অঙ্কের এই অস্ত্র বিক্রির ঘটনায় সমালোচনার মুখেও পড়েছে ব্রিটেন। দেশটির তৈরি অস্ত্রে ইয়েমেনে সৌদি আরব মানবতাবিরোধী অপরাধ করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এই হত্যাকাণ্ডের পর প্রথমবারের মতো স্বাধীন এক তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডবিষয়ক বিশেষ দূত অ্যাগনেস ক্যালামার্ড।