Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১রবিবার , ৪ আগস্ট ২০১৯
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যশোরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিএনপির প্রচার ও লিফলেট বিতারণ

বার্তাকন্ঠ
আগস্ট ৪, ২০১৯ ১০:১৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জহিরুল ইসলাম রিপান।।

যশোরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে দেশব্যাপী বিএনপির চলছে নানা কর্মসূচি। এরই অংশ হিসেবে যশোরে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতায় প্রচার ও লিফলেট বিতারণ করেছে। এ সময় নেতৃবৃন্দ সকলকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশে থাকা, চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া আহবান জানিয়েছেন। আজ রবিবার সকাল ১০ টায় যশোর শহরের জেলরোড এলাকায় তারা এ প্রচার ও লিফলেট বিতারণ করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা বিএনপির আহবায়ক অধ্যাপক নার্গিস বেগম, সদস্য আব্দুস সালাম আজাদ, হাজী আনিচুর রহমান মুকুল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি রবিউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আমির ফয়সাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার রানা, সিনিয়ার সভাপতি নির্মাল কুমার বিট,মাহমুদ হাসান চুন্নু, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা রাজু আহমেদ,আসলাম শেখ, তানজিম আহমেদ,সুমন , ইমরান হোসেন, জি এম সামাদ, জামাল হোসেন, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এ ছাড়া আজ রবিবার বিকেলে শহরের মনিহার এলাকায় যশোর জেলা যুবদল যশোরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতায় প্রচার-প্রচারণা করবে।
এ দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালযশোরে প্রতিদিনই বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। রবিবার (৪ আগস্ট) যশোর জেনারেল হাসপাতালে আরও ১২ রোগী ভর্তি করা হয়েছে। সব মিলিয়ে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ৬৮ জন। যশোর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
ডেঙ্গু রোগ শনাক্তকরণ কিট নিয়ে সমস্যায় রয়েছে যশোর জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে কিট পাওয়া যায়নি। কর্তৃপক্ষ আশা প্রকাশ করেছেন, আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে তারা সরকারিভাবে কিট পাবেন। যশোর সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে,গত ১৭ দিনে যশোর জেলায় মোট ১৪৮ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১০৮ জন। যার মধ্যে ৫৭ জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিওে গেছেন। যশোর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) কাছ থেকে ১০০ কিট পেয়েছেন। যারমধ্যে ৬৭টি ব্যবহার করা হয়েছে।
তিনি বলেন, ‘আশা করছি ২-৩ দিনের মধ্যে সরকারিভাবে কিট সরবরাহ করা হবে। তবে, যতক্ষণ না পর্যন্ত তা পাওয়া যাচ্ছে, ততক্ষণ আমরা নিজস্ব অর্থায়ন কিংবা জনসম্পৃক্ততার মাধ্যমে কিট সংগ্রহ করে ডেঙ্গু রোগীদেও সেবা করে যাবো।’
তিনি বলেন, জেনারেল হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের কর্নার করা হয়েছে এবং সর্বোচ্চ সেবা দেওয়া হচ্ছে। যশোরে এখনও কোনও ডেঙ্গু রোগী মারা যায়নি।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।