সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভারতে গেলে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন জাকির নায়েক: মাহাথির

সাজ্জাদুল ইসলাম সৌরভ ।।

আলোচিত মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ডা. জাকির নায়েক ভারতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন বলে আশঙ্কা করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ।

মালয়েশিয়ার সংবাদ সংস্থা বারনামা ও মালয় মেইল জানিয়েছে, কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মাহাথির মোহাম্মদ এ আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলেন, ভারতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন, এমন আশঙ্কায় জাকির নায়েককে সেখানে ফেরত পাঠানো হবে না। তবে যদি অন্য কোনো দেশ তাকে আশ্রয় দিতে চায়, তাহলে আমরা তাদের স্বাগত জানাব। তিনি বলেন, অর্থ পাচার এবং সন্ত্রাসবাদের অনুপ্রেরণার অভিযোগের মামলায় জাকির নায়েককে ভারতে পাঠালে তিনি হত্যার শিকার হতে পারেন।

এ দিকে বিতর্কিত ধর্মীয় আলোচক জাকির নায়েককে মালয়েশিয়া থেকে বের করা এবং স্থায়ীভাবে তাকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন দেশটির তিন মন্ত্রী। বুধবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে তারা এ দাবি জানান। তারা মনে করছেন, নায়েকের বক্তৃতা ঘৃণা উসকে দিতে পারে যা দেশটির নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠতে পারে।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার হিন্দু সম্প্রদায় নিয়ে এক মন্তব্য নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েন জাকির নায়েক। জাকির নায়েকের মন্তব্যটি ছিল-‘ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের চেয়ে মালয়েশিয়ার সংখ্যালঘু হিন্দুরা ১০০ গুণ বেশি অধিকার ভোগ করে’।

দেশটির ওই তিন মন্ত্রী জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেছেন, মালয়েশিয়ার মুসলিমদের সঙ্গে অমুসলিমদের দূরত্ব তৈরি করার উদ্দেশে এ মন্তব্য করেছেন নায়েক। তবে জাকির নায়েক তার বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

মালয়েশিয়ার যোগাযোগ ও মাল্টিমিডিয়াবিষয়ক মন্ত্রী গোবিন্দ সিং দেও এক বিবৃতিতে বলেন,`আমরা আমাদের অবস্থান জানিয়েছি। যেন জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে তাকে আর মালয়েশিয়ায় থাকার অনুমতি না দেয়া হয়।’এই মন্ত্রী মনে করেন, অর্থপাচার ও ঘৃণা প্রচারের অভিযোগে ভারতে গিয়ে জাকির নায়েকের বিচারের মুখোমুখি হওয়া উচিত। তবে নিজের ওপর আরোপিত সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ডা. জাকির নায়েক।

বুধবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, হিন্দু সংখ্যালঘুদের ওপর মালয়েশিয়া সরকারের ন্যায্য ও ইসলামিক আচরণ নিয়ে আমার মন্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। রাজনৈতিক সুবিধা ও সাম্প্রদায়িক বিভাজন ঘটাতেই এমনটি করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। জাকির নায়েক ভারতীয় নাগরিক। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি অর্থ পাচারের সঙ্গে জড়িত এবং জাতিগত বিদ্বেষ ছড়িয়েছেন। তিনি কয়েক বছর ধরে নির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছেন। মালয়েশিয়ায় তিন বছর ধরে থাকছেন তিনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

আট রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন

ভারতে গেলে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন জাকির নায়েক: মাহাথির

প্রকাশের সময় : ০৭:১২:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৯
সাজ্জাদুল ইসলাম সৌরভ ।।

আলোচিত মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ডা. জাকির নায়েক ভারতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন বলে আশঙ্কা করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ।

মালয়েশিয়ার সংবাদ সংস্থা বারনামা ও মালয় মেইল জানিয়েছে, কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মাহাথির মোহাম্মদ এ আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলেন, ভারতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন, এমন আশঙ্কায় জাকির নায়েককে সেখানে ফেরত পাঠানো হবে না। তবে যদি অন্য কোনো দেশ তাকে আশ্রয় দিতে চায়, তাহলে আমরা তাদের স্বাগত জানাব। তিনি বলেন, অর্থ পাচার এবং সন্ত্রাসবাদের অনুপ্রেরণার অভিযোগের মামলায় জাকির নায়েককে ভারতে পাঠালে তিনি হত্যার শিকার হতে পারেন।

এ দিকে বিতর্কিত ধর্মীয় আলোচক জাকির নায়েককে মালয়েশিয়া থেকে বের করা এবং স্থায়ীভাবে তাকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন দেশটির তিন মন্ত্রী। বুধবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে তারা এ দাবি জানান। তারা মনে করছেন, নায়েকের বক্তৃতা ঘৃণা উসকে দিতে পারে যা দেশটির নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠতে পারে।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার হিন্দু সম্প্রদায় নিয়ে এক মন্তব্য নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েন জাকির নায়েক। জাকির নায়েকের মন্তব্যটি ছিল-‘ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের চেয়ে মালয়েশিয়ার সংখ্যালঘু হিন্দুরা ১০০ গুণ বেশি অধিকার ভোগ করে’।

দেশটির ওই তিন মন্ত্রী জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেছেন, মালয়েশিয়ার মুসলিমদের সঙ্গে অমুসলিমদের দূরত্ব তৈরি করার উদ্দেশে এ মন্তব্য করেছেন নায়েক। তবে জাকির নায়েক তার বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

মালয়েশিয়ার যোগাযোগ ও মাল্টিমিডিয়াবিষয়ক মন্ত্রী গোবিন্দ সিং দেও এক বিবৃতিতে বলেন,`আমরা আমাদের অবস্থান জানিয়েছি। যেন জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে তাকে আর মালয়েশিয়ায় থাকার অনুমতি না দেয়া হয়।’এই মন্ত্রী মনে করেন, অর্থপাচার ও ঘৃণা প্রচারের অভিযোগে ভারতে গিয়ে জাকির নায়েকের বিচারের মুখোমুখি হওয়া উচিত। তবে নিজের ওপর আরোপিত সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ডা. জাকির নায়েক।

বুধবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, হিন্দু সংখ্যালঘুদের ওপর মালয়েশিয়া সরকারের ন্যায্য ও ইসলামিক আচরণ নিয়ে আমার মন্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। রাজনৈতিক সুবিধা ও সাম্প্রদায়িক বিভাজন ঘটাতেই এমনটি করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। জাকির নায়েক ভারতীয় নাগরিক। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি অর্থ পাচারের সঙ্গে জড়িত এবং জাতিগত বিদ্বেষ ছড়িয়েছেন। তিনি কয়েক বছর ধরে নির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছেন। মালয়েশিয়ায় তিন বছর ধরে থাকছেন তিনি।