Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১শনিবার , ১৭ আগস্ট ২০১৯
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

সরকার দেশকে রাজনীতিশূন্য করে দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

বার্তাকন্ঠ
আগস্ট ১৭, ২০১৯ ৬:৪১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নুরুল ইসলাম ।। 

সরকার সুপরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশকে রাজনীতি শূন্য করে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশকে রাজনীতি শূন্য করে দিচ্ছে। বিরাজনীতিকরণ করছে, যাতে দেশের মানুষ রাজনীতি করতে না পারে। রাজনৈতিক দলগুলো যেন রাজনীতি করতে না পারে। তার জন্য সংবিধানে একে একে পরিবর্তন নিয়ে আসছে। তাদের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে— এ দেশে একদল থাকবে, আর কোনো দল থাকবে না। এটা তাদের সেই পুরনো দিনের ইচ্ছা। আগে বাকশাল করেছিল, বর্তমান আওয়ামী লীগ দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চায়।’

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বিএনপির সামনে অনেক বড় ও কঠিন কাজ রয়েছে। মনে রাখতে হবে, সংগঠনের বিকল্প কিছু নেই। সংগঠন থাকলে আন্দোলন ও নির্বাচনে সফল হতে পারবেন। দলের নেতাকর্মী হিসেবে আপনাদের বিষয়টা মনে রাখতে হবে।’

গাজীপুর সিটির সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো. আব্দুল করিমসহ তার অনুসারীদের বিএনপিতে যোগদান উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তিনি বলেন, ‘এসময়ে বিএনপিতে তার (আব্দুল করিম) যোগদান আমাদের অনুপ্রাণিত করছে যে, আমরা সঠিক পথে আছি। বিএনপির রাজনীতি সঠিক পথে আছে। করিম সাহেবের বক্তব্যে সেটা উঠে এসেছে।’

গাজীপুর বিএনপির কমিটিতে তাকে দায়িত্বশীল পদ দিতেও আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল। সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের ওপর অত্যাচার নির্যাতন চালাচ্ছে- অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘৭২ সালেও রক্ষীবাহিনী দিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের হত্যা করেছিল। আজকেও চারদিকে দুঃশাসন। দেশে কোনো আইনশৃঙ্খলা নেই। মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে, নারী-শিশুদের ধর্ষণ করা হচ্ছে। বিনাবিচারে হত্যা করা হচ্ছে।’

খালেদা জিয়া কারাগারে থেকেও গণতন্ত্রের জন্য লড়াই সংগ্রাম করে যাচ্ছেন, এমন মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা সবার আগে তার মুক্তি চাই। কারণ, তিনি গণতন্ত্রের প্রতীক।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘অবিলম্বে অনৈতিক, অগণতান্ত্রিক এই সরকার, যারা নির্বাচন না করে ক্ষমতা দখল করে নিয়েছে তাদের পদত্যাগসহ নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই। বর্তমান নির্বাচন কমিশনকেও বাতিল করে দিয়ে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য কমিশন গঠন করতে হবে।’

আওয়ামী লীগ সরকার দেশের অর্থনীতিকে শেষ করে দিয়েছে বলে দাবি করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘ব্যাংকগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে আগেই। সর্বশেষ কোরবানির চামড়া, যে চামড়া বিক্রি করে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান মাদ্রাসাগুলো তাদের ভরণপোষণের অর্থ সঞ্চয় করে। আজকে সেই চামড়া শিল্পকে সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করে দিয়েছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকারের মতো দুর্নীতিবাজ ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট তৈরি করে। আর চামড়া নিয়ে সরকারের কোনও নীতি না থাকার কারণে চামড়া শিল্প ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে।’

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।