শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

২১শে আগস্ট উপলক্ষে ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

মোঃ সাইম রেজা, গাইবান্ধা। ভয়াবহ ২১শে আগস্টের ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ও নিহতদের স্মরণে আজ ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল বিকাল ৫ ঘটিকার সময় উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ এর সভাপত্বিত্তে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারন সম্পাদক এড. নুরুল আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, উদাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আশাদুজ্জামান বাদশা সহ দলের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মী। আলোচনা সভা শেষে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন ২১ আগষ্ট ২০০৪ এর এই হামলার উদ্দেশ্য ছিল জনগনের নেত্রী দেশ দরদী শেখ হাসিনা সহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় নেতাদের হত্যা করে দেশে একটি শূন্যতা সৃষ্টি করে ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করা। সেদিন আল্লাহর রহমতে শেখ হাসিনা বেচে গেলেও হায়নাদের গ্রেনেড হামলার স্বীকার হয়ে নিহত হন আওয়ামীলীগ নেত্রী আইভি রহমান সহ ২৪জন। কিন্তু দুঃখের বিষয় ১৫ টি বৎসর অতিবাহিত হলেও আজো খুনিরা বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ঐ সমস্ত খুনিদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে তিনি বিচারের দাবি জানান।
Shahim Reza

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

২১শে আগস্ট উপলক্ষে ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

প্রকাশের সময় : ০১:৩৯:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯
মোঃ সাইম রেজা, গাইবান্ধা। ভয়াবহ ২১শে আগস্টের ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ও নিহতদের স্মরণে আজ ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল বিকাল ৫ ঘটিকার সময় উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ এর সভাপত্বিত্তে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারন সম্পাদক এড. নুরুল আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, উদাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আশাদুজ্জামান বাদশা সহ দলের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মী। আলোচনা সভা শেষে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন ২১ আগষ্ট ২০০৪ এর এই হামলার উদ্দেশ্য ছিল জনগনের নেত্রী দেশ দরদী শেখ হাসিনা সহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় নেতাদের হত্যা করে দেশে একটি শূন্যতা সৃষ্টি করে ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করা। সেদিন আল্লাহর রহমতে শেখ হাসিনা বেচে গেলেও হায়নাদের গ্রেনেড হামলার স্বীকার হয়ে নিহত হন আওয়ামীলীগ নেত্রী আইভি রহমান সহ ২৪জন। কিন্তু দুঃখের বিষয় ১৫ টি বৎসর অতিবাহিত হলেও আজো খুনিরা বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ঐ সমস্ত খুনিদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে তিনি বিচারের দাবি জানান।
Shahim Reza