সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মিজান, সম্পাদক পলাশ

ঢাকা ব্যুরো ।। 
দৈনিক যুগান্তরের বিশেষ প্রতিনিধি মিজান মালিককে সভাপতি এবং বার্তা সংস্থা ইউএনবির মফস্বল সম্পাদক ও বাংলা বিভাগের প্রধান রাশেদ শাহরিয়ার পলাশকে সাধারণ সম্পাদক করে ‘ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের’ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্যান্য পদে যারা রয়েছেন- সিনিয়র সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন সরকার (ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক জাগো নিউজ), সহ-সভাপতি আজিজুর রহমান রিপন (ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস), সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক শফিক শাহীন (বিশেষ প্রতিনিধি, এনটিভি), যুগ্ম সম্পাদক দুলাল হোসেন (বিশেষ প্রতিনিধি, দৈনিক আমাদের সময়), সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল হক মান্না (বিশেষ প্রতিনিধি, চ্যানেল আই), অর্থ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন (জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক,যমুনা টিভি), দফতর সম্পাদক গিয়াসউদ্দিন (চিফ রিপার্টার, সানবিডি), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন (স্টাফ রিপোর্টার, দৈনিক সংবাদ), ক্রীড়া সম্পাদক ইবনে নূর শাওন (স্টাফ রিপোর্টার, একুশে টিভি), জনকল্যাণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন মুকুল (সিনিয়র সাব এডিটর, আমাদের অর্থনীতি)।

কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্যরা হলেন- আবু কাওসার (বিশেষ প্রতিনিধি, সমকাল), মোহাম্মদ জসিমউদ্দিন (শিফট ইন-চার্জ, দৈনিক যুগান্তর), ইমরান হোসেন সুমন (স্টাফ রিপোর্টার, এটিএন নিউজ), আবদুল হাই তুহিন (প্রশিক্ষণ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক, ডিআরইউ), কাজী ফয়সাল (ক্রাইম রিপোর্টার, দৈনিক আজকের পত্রিকা)।

গত ২৮ মে অনুষ্ঠিত ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের আহ্বায়ক কমিটির বিলুপ্তি ঘোষণা করে নতুন এ কমিটি গঠনের ঘোষণা দেন চাঁদপুরের সাংবাদিক দৈনিক ইত্তেফাকের সিটি এডিটর আবুল খায়ের। চাঁদপুরকে মেঘনার গ্রাস থেকে রক্ষা করতে বাঁধ নির্মাণ, বালু সন্ত্রাসদের রুখে দেয়া, জেলার বাসিন্দাদের দুর্ভোগচিত্র লেখণির মাধ্যমে যথাযথভাবে তুলে ধরতে প্রয়াস ব্যক্ত করেন সভায় উপস্থিত চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের সব সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের কৃতি সন্তান ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকছুদুর রহমান পাটোয়ারী।

এছাড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, পুলিশের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানাসহ সিনিয়র সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকছুদুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, আপনারা এক যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আমরা সরকারি কর্মকর্তারা যা হাজারবার বললেও জনগণের মধ্যে প্রভাব ফেলে না, তা লেখণির মাধ্যম্যে দেশে তোলপাড় ফেলে দিতে পারেন সাংবাদিকরা। আপনাদের কলমের এ শক্তি চাঁদপুরের উন্নয়ণের স্বার্থে ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারে।ঢাকায় স্বনামধন্য সব গণমাধ্যমে কর্মরত চাঁদপুরের সাংবাদিকরা এই সংগঠনের মাধ্যমে সেই কাজটি করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে দেশের উন্নয়ন তরান্বিত হবেই। দেশের সমস্যা, দুর্নীতি, গণমূখী কর্মকাণ্ডের কথা সাংবাদিকরা লিখলে সেখানে সরকারের দৃষ্টি পড়ে। আর সরকার তা বাস্তবায়নে এগিয়ে আসেন। এই সরকার সবসময়ই সাংবাদিকবান্ধব। আশা করি নদীভাঙন ও মাদক এই দুই ভয়াবহ সংকট থেকে চাঁদপুরকে রক্ষা করতে গণমূখী কাজে এই সাংবাদিক ফোরাম কাজ করবে। চাঁদপুরের উন্নয়নচিত্রটাও তুলে ধরবে এ ফোরামের সদস্যরা।

জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম বলেন, শত ব্যস্ততার মধ্যেও আমরা আজ শেকড়ের টানে এখানে সমবেত হয়েছি। ঢাকায় যে যত বড় পদ-পদবীর হইনা কেন চাঁদপুরকে নিয়েই আমাদের বেশি করে ভাবতে হবে। চাঁদপুরে মানুষের সুখ-দুঃখ, দুদর্শার কথা আমাদের লিখতে হবে। চাঁদপুরের সাংবাদিক হিসেবে আমাদের প্রতি এটা তাদের দাবি। তাই কোন কোন বিষয়ে কাজ করলে চাঁদপুরের উন্নয়ন তরান্বিত হবে তা পত্রিকায় লিখে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে হবে আমাদের।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম

এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, আজ এতো সাংবাদিকের মাঝে নিজেকে আবিস্কার করতে পেরে আমি ধন্য। দায়িত্বের কারণে আমার সঙ্গে সাংবাদিকদেরই বেশি যোগাযোগ রাখতে হয়। সবসময় তাদের সাহায্য ও পরামর্শ আমাকে অভিভূত করে। আশা করি এই সাংবাদিক ফোরাম চাঁদপুরের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাবে।

বক্তব্যে ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যের বর্ণনা দেন কমিটির সভাপতি মিজান মালিক ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার পলাশ। তারা বলেন, এ সংগঠনটি আঞ্চলিক, বে-সরকারি, অরাজনৈতিক, অলাভজনক, ইতিহাস-ঐতিহ্য, সামাজিক ও জনকল্যাণমুলক সংগঠন। এ সংগঠনের সাংবাদিকরা চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলার স্থানীয় ও সামাজিক সমস্যা ও ঘাটতিগুলো অনুসন্ধানের মাধ্যমে তুলে জাতীয় গণমাধ্যমে বস্তুনিষ্ঠভাবে প্রকাশ করবে এবং কেন্দ্রীয়ভাবে এসব সমস্যা সমাধানে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। তারা বলেন, এ সংগঠনে কোনো ভুঁইফোর সংবাদপত্র, নামমাত্র সাংবাদিকতা বা অপসাংবাদিকতার ঠাঁই নেই।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

আট রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন

ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মিজান, সম্পাদক পলাশ

প্রকাশের সময় : ০৮:২৭:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯
ঢাকা ব্যুরো ।। 
দৈনিক যুগান্তরের বিশেষ প্রতিনিধি মিজান মালিককে সভাপতি এবং বার্তা সংস্থা ইউএনবির মফস্বল সম্পাদক ও বাংলা বিভাগের প্রধান রাশেদ শাহরিয়ার পলাশকে সাধারণ সম্পাদক করে ‘ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের’ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্যান্য পদে যারা রয়েছেন- সিনিয়র সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন সরকার (ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক জাগো নিউজ), সহ-সভাপতি আজিজুর রহমান রিপন (ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস), সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক শফিক শাহীন (বিশেষ প্রতিনিধি, এনটিভি), যুগ্ম সম্পাদক দুলাল হোসেন (বিশেষ প্রতিনিধি, দৈনিক আমাদের সময়), সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল হক মান্না (বিশেষ প্রতিনিধি, চ্যানেল আই), অর্থ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন (জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক,যমুনা টিভি), দফতর সম্পাদক গিয়াসউদ্দিন (চিফ রিপার্টার, সানবিডি), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন (স্টাফ রিপোর্টার, দৈনিক সংবাদ), ক্রীড়া সম্পাদক ইবনে নূর শাওন (স্টাফ রিপোর্টার, একুশে টিভি), জনকল্যাণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন মুকুল (সিনিয়র সাব এডিটর, আমাদের অর্থনীতি)।

কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্যরা হলেন- আবু কাওসার (বিশেষ প্রতিনিধি, সমকাল), মোহাম্মদ জসিমউদ্দিন (শিফট ইন-চার্জ, দৈনিক যুগান্তর), ইমরান হোসেন সুমন (স্টাফ রিপোর্টার, এটিএন নিউজ), আবদুল হাই তুহিন (প্রশিক্ষণ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক, ডিআরইউ), কাজী ফয়সাল (ক্রাইম রিপোর্টার, দৈনিক আজকের পত্রিকা)।

গত ২৮ মে অনুষ্ঠিত ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের আহ্বায়ক কমিটির বিলুপ্তি ঘোষণা করে নতুন এ কমিটি গঠনের ঘোষণা দেন চাঁদপুরের সাংবাদিক দৈনিক ইত্তেফাকের সিটি এডিটর আবুল খায়ের। চাঁদপুরকে মেঘনার গ্রাস থেকে রক্ষা করতে বাঁধ নির্মাণ, বালু সন্ত্রাসদের রুখে দেয়া, জেলার বাসিন্দাদের দুর্ভোগচিত্র লেখণির মাধ্যমে যথাযথভাবে তুলে ধরতে প্রয়াস ব্যক্ত করেন সভায় উপস্থিত চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের সব সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের কৃতি সন্তান ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকছুদুর রহমান পাটোয়ারী।

এছাড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, পুলিশের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানাসহ সিনিয়র সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকছুদুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, আপনারা এক যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আমরা সরকারি কর্মকর্তারা যা হাজারবার বললেও জনগণের মধ্যে প্রভাব ফেলে না, তা লেখণির মাধ্যম্যে দেশে তোলপাড় ফেলে দিতে পারেন সাংবাদিকরা। আপনাদের কলমের এ শক্তি চাঁদপুরের উন্নয়ণের স্বার্থে ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারে।ঢাকায় স্বনামধন্য সব গণমাধ্যমে কর্মরত চাঁদপুরের সাংবাদিকরা এই সংগঠনের মাধ্যমে সেই কাজটি করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে দেশের উন্নয়ন তরান্বিত হবেই। দেশের সমস্যা, দুর্নীতি, গণমূখী কর্মকাণ্ডের কথা সাংবাদিকরা লিখলে সেখানে সরকারের দৃষ্টি পড়ে। আর সরকার তা বাস্তবায়নে এগিয়ে আসেন। এই সরকার সবসময়ই সাংবাদিকবান্ধব। আশা করি নদীভাঙন ও মাদক এই দুই ভয়াবহ সংকট থেকে চাঁদপুরকে রক্ষা করতে গণমূখী কাজে এই সাংবাদিক ফোরাম কাজ করবে। চাঁদপুরের উন্নয়নচিত্রটাও তুলে ধরবে এ ফোরামের সদস্যরা।

জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম বলেন, শত ব্যস্ততার মধ্যেও আমরা আজ শেকড়ের টানে এখানে সমবেত হয়েছি। ঢাকায় যে যত বড় পদ-পদবীর হইনা কেন চাঁদপুরকে নিয়েই আমাদের বেশি করে ভাবতে হবে। চাঁদপুরে মানুষের সুখ-দুঃখ, দুদর্শার কথা আমাদের লিখতে হবে। চাঁদপুরের সাংবাদিক হিসেবে আমাদের প্রতি এটা তাদের দাবি। তাই কোন কোন বিষয়ে কাজ করলে চাঁদপুরের উন্নয়ন তরান্বিত হবে তা পত্রিকায় লিখে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে হবে আমাদের।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম

এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, আজ এতো সাংবাদিকের মাঝে নিজেকে আবিস্কার করতে পেরে আমি ধন্য। দায়িত্বের কারণে আমার সঙ্গে সাংবাদিকদেরই বেশি যোগাযোগ রাখতে হয়। সবসময় তাদের সাহায্য ও পরামর্শ আমাকে অভিভূত করে। আশা করি এই সাংবাদিক ফোরাম চাঁদপুরের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাবে।

বক্তব্যে ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা সাংবাদিক ফোরামের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যের বর্ণনা দেন কমিটির সভাপতি মিজান মালিক ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার পলাশ। তারা বলেন, এ সংগঠনটি আঞ্চলিক, বে-সরকারি, অরাজনৈতিক, অলাভজনক, ইতিহাস-ঐতিহ্য, সামাজিক ও জনকল্যাণমুলক সংগঠন। এ সংগঠনের সাংবাদিকরা চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলার স্থানীয় ও সামাজিক সমস্যা ও ঘাটতিগুলো অনুসন্ধানের মাধ্যমে তুলে জাতীয় গণমাধ্যমে বস্তুনিষ্ঠভাবে প্রকাশ করবে এবং কেন্দ্রীয়ভাবে এসব সমস্যা সমাধানে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। তারা বলেন, এ সংগঠনে কোনো ভুঁইফোর সংবাদপত্র, নামমাত্র সাংবাদিকতা বা অপসাংবাদিকতার ঠাঁই নেই।