সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অফিসে বসে ঘুষ নেয়ার সময় আটক সমবায় কর্মকর্তা

মেহেদী হাসান ।। 
অফিসে বসে ঘুষের টাকা নেয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পড়েছেন রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ দাস।

মঙ্গলবার (১৪মে) দুপুরে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। পরে তার বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা হয়েছে।

দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গোদাগাড়ীর কয়েকজন মৎস্যচাষী একটি সমবায় সমিতি খোলেন। এর নিবন্ধনের জন্য তারা গত সোমবার উপজেলা সমবায় কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেন। কিন্তু সমবায় কর্মকর্তা ১৫ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন।

মৎস্যচাষীরা সেদিন সমবায় কর্মকর্তার দপ্তরে ৭ হাজার টাকা ঘুষ দিলেও নিবন্ধনের কাজ হয়নি।সমবায় কর্মকর্তা আরও ৮ হাজার টাকা ঘুষের জন্য আবেদনপত্রে সই করছিলেন না।

বাধ্য হয়ে মঙ্গলবার আরও ৮ হাজার টাকা নিয়ে সমবায় কার্মকর্তার দপ্তরে যান মৎস্যচাষীরা। এই টাকা গ্রহণের সময় হাতেনাতে সমবায় কর্মকর্তাকে আটক করে দুদকের দল।

অভিযানে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন, মো. আল-আমিন, আমিনুল ইসলাম, উপ-সহকারী পরিচালক আবুল বাশারসহ ছয়জনের একটি দল অংশ নেয়।

পরে দুদক কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ দাসের বিরুদ্ধে গোদাগাড়ী থানায় একটি মামলা করেন। ঘুষের ৮ হাজার টাকাসহ তাকে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তরও করা হয়েছে। পুলিশ তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠাবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

আট রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন

অফিসে বসে ঘুষ নেয়ার সময় আটক সমবায় কর্মকর্তা

প্রকাশের সময় : ১০:২২:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ অগাস্ট ২০১৯
মেহেদী হাসান ।। 
অফিসে বসে ঘুষের টাকা নেয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পড়েছেন রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ দাস।

মঙ্গলবার (১৪মে) দুপুরে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। পরে তার বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা হয়েছে।

দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গোদাগাড়ীর কয়েকজন মৎস্যচাষী একটি সমবায় সমিতি খোলেন। এর নিবন্ধনের জন্য তারা গত সোমবার উপজেলা সমবায় কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেন। কিন্তু সমবায় কর্মকর্তা ১৫ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন।

মৎস্যচাষীরা সেদিন সমবায় কর্মকর্তার দপ্তরে ৭ হাজার টাকা ঘুষ দিলেও নিবন্ধনের কাজ হয়নি।সমবায় কর্মকর্তা আরও ৮ হাজার টাকা ঘুষের জন্য আবেদনপত্রে সই করছিলেন না।

বাধ্য হয়ে মঙ্গলবার আরও ৮ হাজার টাকা নিয়ে সমবায় কার্মকর্তার দপ্তরে যান মৎস্যচাষীরা। এই টাকা গ্রহণের সময় হাতেনাতে সমবায় কর্মকর্তাকে আটক করে দুদকের দল।

অভিযানে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন, মো. আল-আমিন, আমিনুল ইসলাম, উপ-সহকারী পরিচালক আবুল বাশারসহ ছয়জনের একটি দল অংশ নেয়।

পরে দুদক কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ দাসের বিরুদ্ধে গোদাগাড়ী থানায় একটি মামলা করেন। ঘুষের ৮ হাজার টাকাসহ তাকে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তরও করা হয়েছে। পুলিশ তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠাবে।