সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যে খাবার বয়স কমিয়ে করে ‘সুন্দর’!

নুরুজ্জামান লিটন ।। 

বয়স বাড়লেও যেন চেহারায় ছাপ না পড়ে- এটাই চায় সকলে। কিন্তু বাস্তবতা হলো বয়সের সঙ্গে সঙ্গে চেহারায় ছাপ তো পড়েই বরং অনেক সময় বয়সের থেকেও বেশি বয়স্ক দেখায়।

এর অন্যতম কারণ খাদ্যাভ্যাস। অনিয়মিত ও অস্বাস্থ্যকর খাবার খেলে, তা আমাদের চেহারায় ম্লানভাব নিয়ে আসে।

এদিকে, স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন এবং খাদ্যভ্যাস বয়সের ছাপ ভিতর থেকে প্রতিরোধ করতে সক্ষম। এই খাবারগুলো আমাদের সুস্থ ও সুন্দর রাখার পাশাপাশি বয়সও কমিয়ে দেই অনেকটা-

১) প্রতিদিন রান্নায় অলিভ অয়েল ব্যবহার করুন। এছাড়া এক চামচ অলিভ অয়েল নিয়ে প্রতিদিন দুইবার করে ত্বকে মালিশ করুন। অলিভ অয়েল ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং সেই সঙ্গে যেকোনো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। ২) পালং শাকে রয়েছে ফাইবার, পটাশিয়েম, ভিটামিন এবং মিনারেল। এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেণ্ট পাওয়া যায়, যা দেহের ফ্রি র্যাডিকেল ধ্বংস করে দেয় এবং ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।৩) বাদাম বা বিশেষ করে আখরোটে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড আছে যা ত্বককে মসৃণ করে ভিতর থেকে উজ্জ্বল করে তোলে।আখরোটে কোলেস্টেরলের মাত্রা খুব কম থাকে। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় আপনি রাখতে পারেন যে কোনও বাদাম।৪) টমেটোতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান লাইকোপেন যা বিভিন্ন চর্মরোগ প্রতিরোধ করতে খুবই কার্যকর। এটি ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে।৫) হলুদে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ইনফ্লামমেটরী উপাদান যা হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। আর তার সঙ্গে সঙ্গে বয়সের ছাপ পড়া রোধে বিশেষ সাহায্য করে থাকে। ৬) প্রতিদিন ডায়েটে চকলেট, কোকো বা এজাতীয় কিছু খেতে পারলে উচ্চ রক্তচাপ, কিডনির সমস্যা এমনকি ডিমেনশিয়ার মতো অসুখ থেকে নিজেকে দূরে রাখা সম্ভব হবে। শরীরে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতেও সাহায্য করে চকলেট।৭) দিন শুরু করুন এক গ্লাস ডালিমের রস খেয়ে। এটি আপনার ত্বকে বলিরেখা পড়া রোধ করবে। ডালিমে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা ত্বকের নমনীয়তা বজায় রেখে তাকে টানটান রাখতে সাহায্য করে।  ৮) ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ডিটক্সিফিকেশন আছে যা দেহ থেকে ক্ষতিকর উপাদান বের করে দিয়ে কোষকে সতেজ রাখে। সপ্তাহে দুই বা তিনদিন খাদ্য তালিকায় ব্রকলি রাখুন। নিশ্চিত উপকার পাবেন।

 

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

আট রোহিঙ্গার যাবজ্জীবন

যে খাবার বয়স কমিয়ে করে ‘সুন্দর’!

প্রকাশের সময় : ১০:৩৮:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ অগাস্ট ২০১৯
নুরুজ্জামান লিটন ।। 

বয়স বাড়লেও যেন চেহারায় ছাপ না পড়ে- এটাই চায় সকলে। কিন্তু বাস্তবতা হলো বয়সের সঙ্গে সঙ্গে চেহারায় ছাপ তো পড়েই বরং অনেক সময় বয়সের থেকেও বেশি বয়স্ক দেখায়।

এর অন্যতম কারণ খাদ্যাভ্যাস। অনিয়মিত ও অস্বাস্থ্যকর খাবার খেলে, তা আমাদের চেহারায় ম্লানভাব নিয়ে আসে।

এদিকে, স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন এবং খাদ্যভ্যাস বয়সের ছাপ ভিতর থেকে প্রতিরোধ করতে সক্ষম। এই খাবারগুলো আমাদের সুস্থ ও সুন্দর রাখার পাশাপাশি বয়সও কমিয়ে দেই অনেকটা-

১) প্রতিদিন রান্নায় অলিভ অয়েল ব্যবহার করুন। এছাড়া এক চামচ অলিভ অয়েল নিয়ে প্রতিদিন দুইবার করে ত্বকে মালিশ করুন। অলিভ অয়েল ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং সেই সঙ্গে যেকোনো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। ২) পালং শাকে রয়েছে ফাইবার, পটাশিয়েম, ভিটামিন এবং মিনারেল। এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেণ্ট পাওয়া যায়, যা দেহের ফ্রি র্যাডিকেল ধ্বংস করে দেয় এবং ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।৩) বাদাম বা বিশেষ করে আখরোটে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড আছে যা ত্বককে মসৃণ করে ভিতর থেকে উজ্জ্বল করে তোলে।আখরোটে কোলেস্টেরলের মাত্রা খুব কম থাকে। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় আপনি রাখতে পারেন যে কোনও বাদাম।৪) টমেটোতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান লাইকোপেন যা বিভিন্ন চর্মরোগ প্রতিরোধ করতে খুবই কার্যকর। এটি ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে।৫) হলুদে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ইনফ্লামমেটরী উপাদান যা হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। আর তার সঙ্গে সঙ্গে বয়সের ছাপ পড়া রোধে বিশেষ সাহায্য করে থাকে। ৬) প্রতিদিন ডায়েটে চকলেট, কোকো বা এজাতীয় কিছু খেতে পারলে উচ্চ রক্তচাপ, কিডনির সমস্যা এমনকি ডিমেনশিয়ার মতো অসুখ থেকে নিজেকে দূরে রাখা সম্ভব হবে। শরীরে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতেও সাহায্য করে চকলেট।৭) দিন শুরু করুন এক গ্লাস ডালিমের রস খেয়ে। এটি আপনার ত্বকে বলিরেখা পড়া রোধ করবে। ডালিমে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা ত্বকের নমনীয়তা বজায় রেখে তাকে টানটান রাখতে সাহায্য করে।  ৮) ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ডিটক্সিফিকেশন আছে যা দেহ থেকে ক্ষতিকর উপাদান বের করে দিয়ে কোষকে সতেজ রাখে। সপ্তাহে দুই বা তিনদিন খাদ্য তালিকায় ব্রকলি রাখুন। নিশ্চিত উপকার পাবেন।