বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভিক্ষুকের অ্যাকাউন্টে ৭ কোটি টাকা!

মো: হাফিজুর রহমান :-

হাসপাতালের সামনে সারাদিন ভিক্ষা করেন। কেউ সেভাবে কোনোদিন তার দিকে ফিরেও তাকায়নি। হঠাৎ একটি ঘটনায় তার নাম এখন সবার মুখে মুখে। ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ। লেবাননের এই নারীর অ্যাকাউন্টে পাওয়া গেছে সাড়ে সাত কোটি টাকার মতো অর্থ! অথচ তিনি নিজেকে ভিক্ষুক বলে পরিচয় দেন। ওয়াফা ‘ধরা’ পড়ে যান জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক বন্ধ হওয়ার ঘোষণা আসার পর। বিতর্কিত একটি সংগঠনকে আর্থিক সহায়তা করার অভিযোগে ব্যাংকটির বিরুদ্ধে তদন্তে নামে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর সেটি বন্ধ করার ঘোষণা দেয়া হয়।

লেবাননের কেন্দ্রীয় ব্যাংক গ্রাহকদের আশ্বস্ত করে বলেন, সবার অর্থ নিরাপদে আছে। বুধবার বিকেল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুটি চেকের ছবি ভাইরাল হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকেই চেক দুটি ইস্যু করা হয়।

বলা হচ্ছে একটি চেক ওয়াফার। ব্যাংকে চেক আনতে গেলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির একজন কর্মকর্তা তাকে চিনে ফেলেন। এরপর তিনি ছবি তুলে পোস্ট করেন। যে হাসপাতালে ওয়াফা ভিক্ষা করতেন, সেখানকার নার্স হানা গালফ নিউজকে বলেন, ‘ওয়াফা দশ বছর ধরে এখানে ভিক্ষা করেন। আমরা তো বুঝতেই পারিনি। তার নাম এখন সবার মুখে মুখে।’

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ভিক্ষুকের অ্যাকাউন্টে ৭ কোটি টাকা!

প্রকাশের সময় : ১০:০০:০০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অক্টোবর ২০১৯
মো: হাফিজুর রহমান :-

হাসপাতালের সামনে সারাদিন ভিক্ষা করেন। কেউ সেভাবে কোনোদিন তার দিকে ফিরেও তাকায়নি। হঠাৎ একটি ঘটনায় তার নাম এখন সবার মুখে মুখে। ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ। লেবাননের এই নারীর অ্যাকাউন্টে পাওয়া গেছে সাড়ে সাত কোটি টাকার মতো অর্থ! অথচ তিনি নিজেকে ভিক্ষুক বলে পরিচয় দেন। ওয়াফা ‘ধরা’ পড়ে যান জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক বন্ধ হওয়ার ঘোষণা আসার পর। বিতর্কিত একটি সংগঠনকে আর্থিক সহায়তা করার অভিযোগে ব্যাংকটির বিরুদ্ধে তদন্তে নামে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর সেটি বন্ধ করার ঘোষণা দেয়া হয়।

লেবাননের কেন্দ্রীয় ব্যাংক গ্রাহকদের আশ্বস্ত করে বলেন, সবার অর্থ নিরাপদে আছে। বুধবার বিকেল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুটি চেকের ছবি ভাইরাল হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকেই চেক দুটি ইস্যু করা হয়।

বলা হচ্ছে একটি চেক ওয়াফার। ব্যাংকে চেক আনতে গেলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির একজন কর্মকর্তা তাকে চিনে ফেলেন। এরপর তিনি ছবি তুলে পোস্ট করেন। যে হাসপাতালে ওয়াফা ভিক্ষা করতেন, সেখানকার নার্স হানা গালফ নিউজকে বলেন, ‘ওয়াফা দশ বছর ধরে এখানে ভিক্ষা করেন। আমরা তো বুঝতেই পারিনি। তার নাম এখন সবার মুখে মুখে।’