শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কাশ্মীর সীমান্তে ট্যাংক পাঠাচ্ছে পাকিস্তান

আলহাজ্ব হাফিজুর রহমান :=

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে পাক-ভারত উত্তপ্ত আবহে নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে ট্যাংক মোতায়েন করছে পাকিস্তান। সাম্প্রতিক উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে সীমান্তে একের পর এক ট্যাংক পাঠাচ্ছে বলে অভিযোগ ভারতের। সামরিক সূত্রের বরাতে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইটিন এ খবর জানিয়েছে। একই সঙ্গে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপ (এসএসজি)-এর ১০০ কমান্ডো মোতায়েনেরও দাবি করেছে সংবাদ মাধ্যমটি।

খুব শিগগিরই ভারতে বড়সড় হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে পাক সেনারা। এমনটাই দাবি ভারতীয় কর্তৃপক্ষের। যদিও ভারতীয় সেনাপ্রধান জানিয়েছেন, কোনো রকম হামলা চালালে উপযুক্ত জবাব পাবে পাকিস্তান।

কিছুদিন শান্ত থাকার পর চলতি সপ্তাহে নিয়ন্ত্রণরেখায় দু’দেশের সেনাদের মধ্যে গুলিবিনিময়ের ঘটনায় মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে ভারত-পাকিস্তান। রোববার দুই পক্ষের গোলাগুলিতে প্রায় ডজনখানেক প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। প্রতিপক্ষের গুলিতে উভয়পক্ষই নিজেদের সেনাসহ বেসামরিক নাগরিক নিহতের দাবি করেছে।

ভারতীয় কর্তৃপক্ষের দাবি, পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীর থেকে রোববার সকালে জম্মু ও কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলায় পাকিস্তানি বাহিনীর হামলায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর দুই সদস্য ও এক বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া দুটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ডন জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারতীয় বাহিনীর নির্বিচার গুলিবর্ষণে পাকিস্তানের এক সেনাসদস্য ও ছয় বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। ২০১৯ সালে একদিনে ভারতীয় বাহিনীর হামলায় এটিই সর্বোচ্চ প্রাণহানি। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও নয়জন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

কাশ্মীর সীমান্তে ট্যাংক পাঠাচ্ছে পাকিস্তান

প্রকাশের সময় : ০৬:৪৭:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯
আলহাজ্ব হাফিজুর রহমান :=

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে পাক-ভারত উত্তপ্ত আবহে নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে ট্যাংক মোতায়েন করছে পাকিস্তান। সাম্প্রতিক উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে সীমান্তে একের পর এক ট্যাংক পাঠাচ্ছে বলে অভিযোগ ভারতের। সামরিক সূত্রের বরাতে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ এইটিন এ খবর জানিয়েছে। একই সঙ্গে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপ (এসএসজি)-এর ১০০ কমান্ডো মোতায়েনেরও দাবি করেছে সংবাদ মাধ্যমটি।

খুব শিগগিরই ভারতে বড়সড় হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে পাক সেনারা। এমনটাই দাবি ভারতীয় কর্তৃপক্ষের। যদিও ভারতীয় সেনাপ্রধান জানিয়েছেন, কোনো রকম হামলা চালালে উপযুক্ত জবাব পাবে পাকিস্তান।

কিছুদিন শান্ত থাকার পর চলতি সপ্তাহে নিয়ন্ত্রণরেখায় দু’দেশের সেনাদের মধ্যে গুলিবিনিময়ের ঘটনায় মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে ভারত-পাকিস্তান। রোববার দুই পক্ষের গোলাগুলিতে প্রায় ডজনখানেক প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। প্রতিপক্ষের গুলিতে উভয়পক্ষই নিজেদের সেনাসহ বেসামরিক নাগরিক নিহতের দাবি করেছে।

ভারতীয় কর্তৃপক্ষের দাবি, পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীর থেকে রোববার সকালে জম্মু ও কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলায় পাকিস্তানি বাহিনীর হামলায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর দুই সদস্য ও এক বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া দুটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ডন জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারতীয় বাহিনীর নির্বিচার গুলিবর্ষণে পাকিস্তানের এক সেনাসদস্য ও ছয় বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। ২০১৯ সালে একদিনে ভারতীয় বাহিনীর হামলায় এটিই সর্বোচ্চ প্রাণহানি। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও নয়জন।