রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আদিতমারীতে বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় দুই জনের কারাদন্ড

মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাফা ,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ=
লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় বাল্যবিয়ের আয়োজন করার দায়ে কনের দাদা ও বরের চাচার বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।শনিবার (০৯ নভেম্বর) দিবাগত রাতে এ আদেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।সাজা প্রাপ্তরা হলেন, আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের গন্ধমরুয়া গ্রামের মৃত শুকর আলীর ছেলে কনের দাদা আব্দুল কুদ্দুস (৬৫) ও কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের ভিমসারমা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে বরের চাচা হাফিজুল ইসলাম (৪৫)।আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের গন্ধমরুয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলীর মেয়ে বালাপুকুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী জাহেদা খাতুনের (১৬) সাথে রাজারহাটের ভিমসারমা গ্রামের রিয়াজুলের ছেলে আঙ্গুরের (১৯) বাল্য বিয়ের আয়োজন চলছে। এমন একটি গোপন খবরে আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন থানা পুলিশ নিয়ে রাতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।এ সময় পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেয়ে সবাই পালিয়ে গেলেও কনের দাদা আব্দুল কুদ্দুস ও বরের চাচা হাফিজুলকে আটক করে পুলিশ। বাল্যবিয়ের আয়োজন করার দায়ে কনের দাদা কুদ্দুসের ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে দুই মাসের এবং বরের চাচা হাফিজুলের ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম করাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত।আটককৃতরা জরিমানা দিতে ব্যর্থ হলে তাদেরকে লালমনিরহাট কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ইউএনও মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লালমনি প্রতিদিনকে বলেন, সাজা প্রাপ্তদের রাতেই লালমনিরহাট কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

ট্রাম্পের ওপর হামলাকারীর পরিচয় পাওয়া গেছে

আদিতমারীতে বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় দুই জনের কারাদন্ড

প্রকাশের সময় : ০৬:৩৭:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ নভেম্বর ২০১৯
মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাফা ,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ=
লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় বাল্যবিয়ের আয়োজন করার দায়ে কনের দাদা ও বরের চাচার বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।শনিবার (০৯ নভেম্বর) দিবাগত রাতে এ আদেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।সাজা প্রাপ্তরা হলেন, আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের গন্ধমরুয়া গ্রামের মৃত শুকর আলীর ছেলে কনের দাদা আব্দুল কুদ্দুস (৬৫) ও কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের ভিমসারমা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে বরের চাচা হাফিজুল ইসলাম (৪৫)।আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের গন্ধমরুয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলীর মেয়ে বালাপুকুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী জাহেদা খাতুনের (১৬) সাথে রাজারহাটের ভিমসারমা গ্রামের রিয়াজুলের ছেলে আঙ্গুরের (১৯) বাল্য বিয়ের আয়োজন চলছে। এমন একটি গোপন খবরে আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন থানা পুলিশ নিয়ে রাতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।এ সময় পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেয়ে সবাই পালিয়ে গেলেও কনের দাদা আব্দুল কুদ্দুস ও বরের চাচা হাফিজুলকে আটক করে পুলিশ। বাল্যবিয়ের আয়োজন করার দায়ে কনের দাদা কুদ্দুসের ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে দুই মাসের এবং বরের চাচা হাফিজুলের ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম করাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত।আটককৃতরা জরিমানা দিতে ব্যর্থ হলে তাদেরকে লালমনিরহাট কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ইউএনও মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লালমনি প্রতিদিনকে বলেন, সাজা প্রাপ্তদের রাতেই লালমনিরহাট কারাগারে পাঠানো হয়েছে।