সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‌‘নজর রাখতে হবে উগ্রবাদীরা যাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে’

রোকনুজ্জামান রিপন :=

অতি ধার্মিক লোকদের প্রতি নজর রাখতে হবে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন।তিনি বলেছেন, এর নেপথ্যে কোনো অপশক্তি যাতে গড়ে উঠতে না পারে। কারণ ধর্মীয় অনুভূতি কাজে লাগিয়ে উগ্রবাদীরা দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। আতঙ্ক সৃষ্টি করে। হলি আর্টিজানের হামলা তারই প্রমাণ।শুক্রবার দুপুরে নরসিংদী জেলা পরিষদের উদ্যোগে বেলাব উপজেলার উয়ারী-বটেশ্বর পশ্চিমপাড়া গ্রামে প্রত্নতত্ত্ব সংগ্রাহক হানিফ পাঠানের বাড়ির কাছে ‘গঙ্গাঋদ্ধি জাদুঘর’ নামে একটি প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘরের নির্মাণ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, উয়ারী-বটেশ্বর এই অঞ্চলের সমৃদ্ধ ইতিহাসের ধারক। এর মাধ্যমে প্রমাণ হয় এই অঞ্চল বহু বছর আগে থেকেই ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য সমৃদ্ধ ছিল। সেই উজ্জ্বল ইতিহাসকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরবে গঙ্গাঋদ্ধি জাদুঘর। এ থেকে ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পে উৎসাহিত হবে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম। বাস্তবায়িত হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের বাংলাদেশ; যা বাস্তবায়ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহাপরিকল্পনা ডেল্টা প্ল্যান হাতে নিয়েছেন।

দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, কোনো ধরনের বিভাজন মেনে নেওয়া হবে না। ব্যক্তিগত স্বার্থে একে অপরের বিরুদ্ধে কাদা ছোড়াছুড়ি করলে দলীয় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে। উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে। গ্রুপিংয়ের কারণে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হলে কারও ক্ষমা থাকবে না।

অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মতিন ভূঞার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী-২ আসনের সাংসদ আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলিপ, নরসিংদী-৩ আসনের সাংসদ জহিরুল হক ভূঞা মোহন, ঐতিহ্য অন্বেষণের ভারপ্রাপ্ত  চেয়ারম্যান ড. নূহ-উল-আলম লেলিন, পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান রাম চন্দ্র দাস, জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ারুল নাসের ও নরসিংদী পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুলসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।নরসিংদী জেলা পরিষদ প্রায় ৭ কোটি ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করতে যাচ্ছে গঙ্গাঋদ্ধি নামের এ জাদুঘরটি।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

‌‘নজর রাখতে হবে উগ্রবাদীরা যাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে’

প্রকাশের সময় : ০৯:২১:১৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৯
রোকনুজ্জামান রিপন :=

অতি ধার্মিক লোকদের প্রতি নজর রাখতে হবে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন।তিনি বলেছেন, এর নেপথ্যে কোনো অপশক্তি যাতে গড়ে উঠতে না পারে। কারণ ধর্মীয় অনুভূতি কাজে লাগিয়ে উগ্রবাদীরা দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। আতঙ্ক সৃষ্টি করে। হলি আর্টিজানের হামলা তারই প্রমাণ।শুক্রবার দুপুরে নরসিংদী জেলা পরিষদের উদ্যোগে বেলাব উপজেলার উয়ারী-বটেশ্বর পশ্চিমপাড়া গ্রামে প্রত্নতত্ত্ব সংগ্রাহক হানিফ পাঠানের বাড়ির কাছে ‘গঙ্গাঋদ্ধি জাদুঘর’ নামে একটি প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘরের নির্মাণ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, উয়ারী-বটেশ্বর এই অঞ্চলের সমৃদ্ধ ইতিহাসের ধারক। এর মাধ্যমে প্রমাণ হয় এই অঞ্চল বহু বছর আগে থেকেই ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য সমৃদ্ধ ছিল। সেই উজ্জ্বল ইতিহাসকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরবে গঙ্গাঋদ্ধি জাদুঘর। এ থেকে ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পে উৎসাহিত হবে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম। বাস্তবায়িত হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের বাংলাদেশ; যা বাস্তবায়ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহাপরিকল্পনা ডেল্টা প্ল্যান হাতে নিয়েছেন।

দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, কোনো ধরনের বিভাজন মেনে নেওয়া হবে না। ব্যক্তিগত স্বার্থে একে অপরের বিরুদ্ধে কাদা ছোড়াছুড়ি করলে দলীয় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে। উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে। গ্রুপিংয়ের কারণে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হলে কারও ক্ষমা থাকবে না।

অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মতিন ভূঞার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী-২ আসনের সাংসদ আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলিপ, নরসিংদী-৩ আসনের সাংসদ জহিরুল হক ভূঞা মোহন, ঐতিহ্য অন্বেষণের ভারপ্রাপ্ত  চেয়ারম্যান ড. নূহ-উল-আলম লেলিন, পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান রাম চন্দ্র দাস, জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ারুল নাসের ও নরসিংদী পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুলসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।নরসিংদী জেলা পরিষদ প্রায় ৭ কোটি ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করতে যাচ্ছে গঙ্গাঋদ্ধি নামের এ জাদুঘরটি।