রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এনআরসি রুখতে আন্দোলনের ঘোষণা মমতার

আলহাজ্ব মতিয়ার রহমান:=

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে এ বার রাস্তায় নেমে প্রতিবাদের ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের দিঘায় সাংবাদিক সম্মেলন করে আগামী রবি ও সোমবার ‘নো এনআরসি’ আন্দোলনের কর্মসূচির কথা জানিয়ে মমতা আবারও জানিয়েছেন, এ রাজ্যে এনআরসি হবে না। কাউকে কেউ তাড়াতে পারবে না। ওই আন্দোলনে নিজেও অংশ নেবেন বলে জানান তিনি।

মমতার ঘোষণা, রবিবার ১৫ ডিসেম্বর রাজ্য জুড়ে ব্লকে ব্লকে ‘নো এনআরসি’ আন্দোলন হবে। সব জেলায় মিছিল করবেন দলের কর্মীরা। তার পরের দিন অর্থাৎ ১৬ তারিখ কলকাতায় বি আর অম্বেডকর মূর্তির পাদদেশে জমায়েত করবে তৃণমূল। সেখান থেকে গাঁন্ধী মূর্তি পর্যন্ত মিছিল হবে। তার পর সেই মিছিল যাবে জোড়াসাঁকোয় কবিগুরুর বাড়ি পর্যন্ত। তাতে নেতৃত্ব দেবেন মমতা নিজে।

তৃণমূল নেত্রী মমতা এ দিন বলেন, গণতান্ত্রিক ভাবে প্রতিবাদ করুন। আমি নিজেও সেই সব আন্দোলনে যোগ দেব। গায়ের জোরে সিএবি পাশ করেছে। কিন্তু বাংলায় এনআরসি করতে দেব না। প্রত্যেক রাজ্যের আলাদা আবেগ আছে, আলাদ বিষয় আছে।

রাজ্যে এনআরসি করতে দেবেন না বলে ফের এ দিন মমতা বলেন, বিজেপি বাংলার পাপ, দেশের অভিশাপ। অসমে ডিটেনশন ক্যাম্প করছে রাজ্য সরকার। সেখানে তাদের দলের সরকার ছিল বলে করতে পেরেছে। এখানে হতে দেব না।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশকে সোনার বাংলা করা -শেখ আফিল উদ্দিন, এমপি

এনআরসি রুখতে আন্দোলনের ঘোষণা মমতার

প্রকাশের সময় : ০৬:৩৭:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯
আলহাজ্ব মতিয়ার রহমান:=

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে এ বার রাস্তায় নেমে প্রতিবাদের ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের দিঘায় সাংবাদিক সম্মেলন করে আগামী রবি ও সোমবার ‘নো এনআরসি’ আন্দোলনের কর্মসূচির কথা জানিয়ে মমতা আবারও জানিয়েছেন, এ রাজ্যে এনআরসি হবে না। কাউকে কেউ তাড়াতে পারবে না। ওই আন্দোলনে নিজেও অংশ নেবেন বলে জানান তিনি।

মমতার ঘোষণা, রবিবার ১৫ ডিসেম্বর রাজ্য জুড়ে ব্লকে ব্লকে ‘নো এনআরসি’ আন্দোলন হবে। সব জেলায় মিছিল করবেন দলের কর্মীরা। তার পরের দিন অর্থাৎ ১৬ তারিখ কলকাতায় বি আর অম্বেডকর মূর্তির পাদদেশে জমায়েত করবে তৃণমূল। সেখান থেকে গাঁন্ধী মূর্তি পর্যন্ত মিছিল হবে। তার পর সেই মিছিল যাবে জোড়াসাঁকোয় কবিগুরুর বাড়ি পর্যন্ত। তাতে নেতৃত্ব দেবেন মমতা নিজে।

তৃণমূল নেত্রী মমতা এ দিন বলেন, গণতান্ত্রিক ভাবে প্রতিবাদ করুন। আমি নিজেও সেই সব আন্দোলনে যোগ দেব। গায়ের জোরে সিএবি পাশ করেছে। কিন্তু বাংলায় এনআরসি করতে দেব না। প্রত্যেক রাজ্যের আলাদা আবেগ আছে, আলাদ বিষয় আছে।

রাজ্যে এনআরসি করতে দেবেন না বলে ফের এ দিন মমতা বলেন, বিজেপি বাংলার পাপ, দেশের অভিশাপ। অসমে ডিটেনশন ক্যাম্প করছে রাজ্য সরকার। সেখানে তাদের দলের সরকার ছিল বলে করতে পেরেছে। এখানে হতে দেব না।