সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সীমান্তে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বিজিবিকে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

তানজীর মহসিন :=

দেশের বিভিন্ন এলাকার সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি মাদক, চোরাচালান বন্ধ ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডকে (বিজিবি) কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বুধবার ‘বিজিবি দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে পিলখানা সদর দফতরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা সততা, দক্ষতা ও দেশপ্রেমে উদ্ভুদ্ধ হয়ে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন। দেশ অর্থনৈতিকভাবে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে সেই ধারা যেন অব্যাহত থাকে।এ সময়, সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি দুর্যোগকালীন উদ্ধার কার্যক্রম ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় বিজিবির প্রত্যক্ষ ভূমিকার প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী সকাল ১০টায় পিলখানা সদর দফতরে আসেন। বিজিবি দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানে মন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা এবং কূটনৈতিক কোরের সদস্যরা উপস্থিত হন।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রী প্যারেড ও কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং ৪টি কন্টিনজেন্টের সালাম গ্রহণ করেন। পরে, বিজিবিতে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বিজিবির ৬০ কর্মকর্তা এবং সদস্যদের পদক পরিয়ে দেন সরকার প্রধান।এ ছাড়া দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে বীর-উত্তম ফজলুর রহমান খন্দকার মিলনায়তনে বিজিবি সদস্যদের বিশেষ দরবার গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী।

আপনার মন্তব্য লিখুন

লেখকের সম্পর্কে

Shahriar Hossain

সীমান্তে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বিজিবিকে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ১০:২৯:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯
তানজীর মহসিন :=

দেশের বিভিন্ন এলাকার সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি মাদক, চোরাচালান বন্ধ ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডকে (বিজিবি) কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বুধবার ‘বিজিবি দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে পিলখানা সদর দফতরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা সততা, দক্ষতা ও দেশপ্রেমে উদ্ভুদ্ধ হয়ে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন। দেশ অর্থনৈতিকভাবে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে সেই ধারা যেন অব্যাহত থাকে।এ সময়, সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি দুর্যোগকালীন উদ্ধার কার্যক্রম ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় বিজিবির প্রত্যক্ষ ভূমিকার প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী সকাল ১০টায় পিলখানা সদর দফতরে আসেন। বিজিবি দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানে মন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা এবং কূটনৈতিক কোরের সদস্যরা উপস্থিত হন।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রী প্যারেড ও কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং ৪টি কন্টিনজেন্টের সালাম গ্রহণ করেন। পরে, বিজিবিতে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বিজিবির ৬০ কর্মকর্তা এবং সদস্যদের পদক পরিয়ে দেন সরকার প্রধান।এ ছাড়া দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে বীর-উত্তম ফজলুর রহমান খন্দকার মিলনায়তনে বিজিবি সদস্যদের বিশেষ দরবার গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী।